উখিয়ার পাতাবাড়ি সন্ত্রাসীদের গুলিতে আহত-১০, বসতবাড়িতে আগুন, ৯ লক্ষ টাকা ক্ষয়ক্ষতি

উখিয়ার পাতাবাড়ি নলবনিয়া গ্রামে সন্ত্রাসীদের গুলিতে মহিলাসহ ১০ জন আহতের খবর পাওয়া গেছে। এলাকাবাসি জানান, বহু অপকর্মের গডফাদার নামধারী মুক্তিযোদ্ধা পরিচয়ী ভূমিদস্যু নুরুল আলম প্রকাশ বাদশা মিয়া (৭০) চাঞ্চল্যকর এই ঘটনার মূল নায়ক।

এলাকাবাসি আরো জানান, ওই বহু অপকর্মের হোতা বাদশা মিয়া এলাকায় সন্ত্রাসী বসবাস গড়ে তোলেন। তার ওই সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে জায়গা-জমি জবর দখল, সরকারি খাস জমি দখলসহ বিভিন্ন সন্ত্রাসী তাণ্ডব চালিয়ে যাচ্ছে নির্ভয়ে। তাতে কেউ বাধা দিলে তার পরিচালিত গুন্ডা বাহিনী দিয়ে প্রাণ নাশের হুমকি লাশ গুম করাসহ হয়রানিমূলক বিভিন্ন মামলায় জড়ানোর হুমকি দেয়। অন্যথায়, সাধারণ মানুষ তার বিরুদ্ধে কথা বলার সাহস করে না। এদিকে ১০ জুন দুপুর ১২টার দিকে পাতাবাড়ির নলবনিয়া গ্রামে মৃত মতিউর রহমানের পুত্র সাহাব উদ্দির (৪৯)’র বসতবাড়ি জবর দখলের অপচেষ্টা চালায় সন্ত্রাসীরা।

অসহায় সাহাবুদ্দিনের পরিবার ওই সময় সন্ত্রাসীদের বাঁধা দেওয়ায় আরো বেপরোয়া হয়ে গুলি চালালে ঘটনাস্থলে গুলিবিদ্ধ হন জসিম উদ্দিনের স্ত্রী নুরুন্নাহার বেগম মৃত কাসেম আলীর পুত্র কালো সওদাগর, তার স্ত্রী রোশন আরা, দলিলুর রহমানের স্ত্রী ছানোয়ারা বেগম, মৃত মতিউর রহমানের পুত্র সাহাব উদ্দিন, তার স্ত্রী হাসানারা বেগম (৪০), পুত্র রাজিব (২৫), মৃত মতিউর রহমানের স্ত্রী ময়না খাতুনসহ আহত হন। এদের মধ্যে ৩ জনের অবস্থা গুরুত্বর। ওই চিহ্নিত সন্ত্রাসী বাদশা বাহিনীর চেইন অব কমান্ড মাহবুবুল আলম ও অপর সহযোগী আলী হোসেনের নেতৃত্বে বাদশা মিয়ার পুত্র সন্ত্রাসী মোর্শেদ আলম টিটু, খোরশেদ আলম, মাহবুবুল আলমের পুত্র রিগান, খোরশেদ আলমের পুত্র মঈনুল আলম, ঊর্মি আক্তার, বিউটি, হ্যাপি, রাশেদা ও টমেটো আক্তারসহ অজ্ঞাত ৩০ জন সন্ত্রাসী সাহাব উদ্দিনের ২টি বসতবাড়ি জ্বালিয়ে দেয়। ওই সময় প্রায় ৭’শ গাছ কেটে বসত বাড়ি লুটপাট করে নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকারসহ ৯ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয় বলে জানান এলাকাবাসি।

এদিকে আহত সাহাব উদ্দিন জানান, গত ১০ বছর পূর্বে তার পিতা মতিউর রহমানকে কুপিয়ে হত্যা করে বাদশা মিয়া বাহিনী ও তার সহযোগী সন্ত্রাীরা। আমার পিতা হত্যার বিচার এখনো পাইনি। এ বিষয়ে নুরুল আলম প্রকাশ বাদশা মিয়ার সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি নিজের দাপট দেখিয়ে প্রতিবেদককে হুমকি দিয়ে মোবাইলের লাইন কেটে দেন।
এলাকাবাসি এই সন্ত্রাসী বাদশা বাহিনীর বিরুদ্ধে দ্রুত আইনের আওতায় এনে তড়িৎ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের প্রতি জোর দাবি জানিয়েছেন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।