ফেনীতে ছাত্রদলের দুই নেতাকে কারাগারে প্রেরণ: প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও সভা

জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল ফেনী জেলা শাখার সিনিয়র সহসভাপতি মেজবা উদ্দিন ভূঞা ও মহিপাল কমার্স কলেজের ভিপি দেলোয়ার হোসেন দোলনকে সন্ত্রাস দমন আইনে দায়ের করা মামলায় গতকাল বুধবার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালত জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে প্রেরণের আদেশ দিয়েছেন। এ ঘটনার প্রতিবাদে জেলা ছাত্রদলের উদ্যোগে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতাবাদ সভা সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, গত ৫ মে ঢাকার শাপলা চত্বরে হেফাজত ইসলামের সমাবেশে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাবাহিনীর নারকীয় হামলার ঘটনার প্রতিবাদে ৬ মে ফেনীতে ছাত্রদল ও যুবদলের নেতাকর্মিরা বিক্ষোভ মিছিল করে। মিছিল শেষে ভিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা মহিপাল, লালপোল, যাত্রসিদ্ধি ও লেমুয়া ব্রিজে গাড়ী ভাংচর করে। এ ঘটনায় ফেনী মডেল থানা পুলিশের এসআই আবদুস সালাম বাদী হয়ে সন্ত্রাস দমন আইনে ছাত্রদল-যুবদলের ৩১ নেতার নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত ৩০-৪০জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করে।

ঐ মামলায় হাইকোর্ট থেকে আসামীরা জামিন লাভ করেন। একই মামলায় সদর উপজেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক ফজলুর রহমান বকুল, যুবদলের সাধারন সম্পাদক আনোয়ার হোসেন পাটোয়ারী, ছাত্রদলের সিনিয়র সহসভাপতি মেজবাহ উদ্দিন ভূঞা ও ছাত্রদল নেতা দোলনসহ অন্যারাও উচ্চ আদালত থেকে জামিন লাভ করে। গতকাল বুধবার ঐ মামলায় ফেনীর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট-৩ খায়েরুল আমিনের আদালতে জামিনের প্রার্থনা করলে আদালত জামিন নামঞ্জুর করে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন। এ ঘটনার প্রতিবাদে ছাত্রদল ফেনী জেলা শাখার উদ্যোগে বিকেলে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশের আয়োজন করে।

মিছিলটি মহিপাল থেকে শুরু হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে প্রেসক্লাবে সামনে মিছিল হয়। জেলা ছাত্রদলের সভাপতি আমান উদ্দিন কায়সার সাব্বিরের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন-সদর উপজেলা বিএনপির সভাপতি এড. সৈয়দ মিজানুর রহমান, জেলা যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক নাসির উদ্দিন খন্দকার, সাবেক ছাত্রদলের সভাপতি কামরুল হাসান মাসুদ, জেলা ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক এসএম কায়সার এলিন, যুগ্ম সম্পাদক বাদল, ফেনী কলেজ ছাত্রদলের যুগ্ম সম্পাদক মোর্শেদ, মিল্লাদ, মামুন, দুলাল প্রমুখ। বক্তারা বলেন এ সরকার মামলা হামলা দিয়ে ছাত্রদলের জনপ্রিয় নেতা মেজবা ও দোলনকে হয়রানি করছে। তারা অনতিবিলম্বে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার ও নি:শর্ত মুক্তি দাবী করেন।


সম্পাদনা: শামীম ইবনে মাজহার,নিউজরুম এডিটর

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।