কোটাবিরোধী আন্দোলনের ঘটনায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকা থেকে ৩৪ জন আটক

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে বৃহস্পতিবারের ভাঙচুরের ঘটনায় অভিযুক্তদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে ।

শুক্রবার বেলা সাড়ে তিনটা পর্যন্ত অন্তত ৩৪ জনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে বলে জানিয়েছেন শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সিরাজুল ইসলাম। বিশ্ববিদ্যালয়সহ আশপাশের বিভিন্ন এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়েছে বলে জানান তিনি।
ওসি সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, “এখন পর্যন্ত ৩৪ জনকে আটক করা হয়েছে। সন্ধ্যার পর মোট সংখ্যা জানা যাবে। আটককৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।”
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষের জের ধরে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির বাস ভবনের গেট, প্রক্টরের অফিস, রেজিস্ট্রার ভবন ভাঙচুর করে বিক্ষুদ্ধ শিক্ষার্থীরা। ৩৪তম বিসিএস প্রিলিমিনারি পরীক্ষা ও কোটা বাতিলের দাবিতে তাদের এ আন্দোলন।
বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে শিক্ষার্থীরা ভিসি ও প্রক্টরের নির্লিপ্ততার অভিযোগ এনে এ ভাঙচুর চালান বলে জানা গেছে। এ সময় শিক্ষার্থীরা ভিসির বাস ভবনের দিকে ও রেজিস্ট্রার ভবনের দিকে ইটপাটকেল ছুঁড়ে।
ভাঙচুরের ঘটনায় ২০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ চেয়ে মামলা করেছিল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় অজ্ঞাতনামা ৫০০ জনকে আসামি করে শাহবাগ থানায় এ মামলা করা হয়।
ঢাবির প্রক্টর (ভারপ্রাপ্ত) অধ্যাপক ড. আমজাদ আলী বলেন, “শিক্ষার্থীরা যেভাবে ভাঙচুর করেছেন, তা কোনোভাবেই কাম্য নয়। এ কারণে ২০ লাখ টাকার ক্ষতিপূরণ মামলা করা হয়েছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।