ফেনীতে জামায়াত-শিবিরের বিক্ষোভ মিছিল শেষে হামলা, গাড়ি ভাংচুর ম্যাজিস্ট্রেটসহ আহত ৫

মানবতাবিরোধী অপরাধে অভিযুক্ত জামায়াতের সাবেক আমির গোলাম আযমের রায় ঘিরে সোমবার সারা দেশে সকাল-সন্ধ্যা হরতাল ডেকেছে সংগঠনটি। গতকাল রবিবার বিকেলে ফেনী শহর জামায়াতের উদ্যোগে বিক্ষোভ মিছিল বের হয়। মিছিল শেষে জামায়াত-শিবির কর্মীরা হামলা ও ভাংচুর চালিয়ে ১১ট গাড়ি ভাঙচুর করা হয়েছে। এ সময় জেলা প্রশাসনের একজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের গাড়িতে হামলা চালায় শিবির কর্মীরা।
এতে ওই গাড়িতে থাকা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কেএমএম মোর্শেদ খানসহ ৫জন আহত হয়েছে। তাকে চিকিৎসার জন্য তাৎক্ষণিকভাবে ইবনে হাসমান নামে একটি প্রাইভেট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
এ সময় শিবির কর্মীদের ইটের আঘাতে অপর তিন গাড়ি চালক আহত হন। এ সময় শিবির কর্মিরা রাস্তায় দাড়িয়ে ১১টি সিএনজি ও একটি মাক্রোবাস ভাংচুর চালায়। মুহুর্তের মধ্যে পুরো এলাকা রণক্ষেত্রে পরিণত হয়। আহতরা হলেন সিএনজি চালক মিলন, পুলিশ সদস্য জহির ও পলাশ নামের এক পথচারীর নাম জানা গেছে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শহরের জিরো পয়েন্ট থেকে মিছিল বের করে জামায়াত-শিবির কর্মীরা। মিছিলটি এসএসকে রোড় হয়ে পাঠানবাড়ী এলাকায় গেলে মিছিল শেষে শিবির কর্মীরা অতর্কিতে গাড়ি ভাঙচুর চালায়। এ সময় শহরের মহিপাল থেকে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে যাওয়ার পথে শিবির নেতাকর্মীদের হামলায় মধ্যে পড়েন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কেএমএম মোর্শেদ খান। এ সময় তিনি হাতে ইটের আঘাতে পায়ে ও বুকে আঘাত পান।
মিছিলে জামায়াত নিয়ন্ত্রিত আল-জামিয়াতুল ফালাহিয়া মাদ্রাসার অধিকাংশ ছাত্র অংশ নেয় বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন। মিছিলে নেতৃত্ব দেন শহর জামায়াতের আমির মাওলানা আবদুল হান্নান ও সেক্রেটারী আ.ন.ম আবদুর রহিম ফেনী জেলা শিবিরের সভাপতি তারেক মাহমুদ ও শহর শিবির নেতা জামাল উদ্দিনসহ অসংখ্য নেতাকর্মিরা।
ফেনী সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি/ তদন্ত) আবুল কালাম আজাদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।
রোববার দুপুর আড়াইটার দিকে জামায়াতের ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারি জেনারেল রফিকুল ইসলাম খান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
এদিন সকাল সাড়ে ১১টার দিকে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১ জানান, গোলাম আযমের মামলার রায় ঘোষণা করা হবে সোমবার।
প্রসঙ্গত, এর আগে জামায়াতের তিন নেতা কাদের মোল্লা, দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদী ও মোহাম্মদ কামারুজ্জামানের রায়ের দিনও হরতাল দিয়েছিল মুক্তিযুদ্ধের বিরোধিতাকারী পাকিস্তানপ্রেমী এই দলটি।


সম্পাদনা: শামীম ইবনে মাজহার,নিউজরুম এডিটর

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।