দ্রুত ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠায় গ্রাম আদালতের বিকল্প নাই

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোঃ আব্দু রউফ  বলেছেন, সরকার নির্যাতিত, নিপীড়িত ও দরিদ্র জনগোষ্ঠির জন্য গ্রাম আদালত আইন-২০০৬ বাস্তবায়নে সচেষ্ট। দরিদ্র জনগোষ্টির আইনী সুফল প্রদানে তাই এই আইনকে সম্বিলিতভাবে বাস্তবায়ন করতে হবে। দেশের বর্তমান প্রেক্ষাপটে স্বল্প খরচে দ্রুত মামলা নিষ্পত্তিতে ও সামাজিক ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠা করতে গ্রাম আদালতের বিকল্প নাই। এ সময় তিনি সকলকে ছোটখাট বিরোধ নিরসনে গ্রাম আদালতে যাওয়ার পরামর্শ দেন। গ্রাম আদালত শক্তিশালী ও কার্যকরীকরণ করার লক্ষ্যে “স্থানীয় সরকার বিভাগ ও স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা” সমূহের প্রতিনিধিদের সমন্বয়ে গ্রাম আদালত কার্যকরীকরণ বিষয়ক দ্বিমাসিক সমন্বয় সভা গত ১৮ জুলাই কক্সবাজার জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে উপ-পরিচালক, স্থানীয় সরকার বিভাগ ও অতিঃ  জেলা প্রশাসক প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ সব কথা বলেন। রামু উপজেলার চাকমারকুল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ মুফিদুল আলমের সভাপতিত্বে “বাংলাদেশ লিগ্যাল এইড এন্ড সার্ভিসেস ট্রাস্ট (ব্লাস্ট)” কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন “অ্যাকটিভেটিং ভিলেজ কোর্টস ইন বাংলাদেশ” প্রকল্পের কক্সবাজার জেলা সমন্বয়কারী বশির আহম্মদ মনির সঞ্চালনায় সমন্বয় সভা অনুষ্টিত হয়। অনুষ্টিত সভায় শুভেচ্ছা বক্তব্য প্রদান করেন সদর উপজেলার খুরুশকুল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ আব্দুর রহিম মাষ্টার। তিনি বলেন, উচ্চ আদালতে মামলার জট কমাতে এবং হয়রানী বন্ধে গ্রাম আদালত একটি অন্যতম উপায়। তিনি সকল চেয়ারম্যানকে গ্রাম আদালত কার্যকর করতে অনুরোধ জানান। সভার সভাপতি ও চাকমারকুল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বলেন, সরকার আইনটির আর্থিক এখতিয়ার বৃদ্ধি করতে যাচ্ছে এবং এটি গ্রাম আদালত কার্যকরীকরণে ব্যপক ভুমিক রাখবে। অনুষ্ঠানে প্রকল্পের কার্যক্রম বিষয়ক মাল্টিমিডিয়া প্রতিবেদন উপস্থাপন করেন প্রকল্পের সহ-সমন্বয়কারী (মনিটরিং এন্ড ইভ্যালুয়েশন) শ্যামল কান্তি দাশ। সভায় অন্যান্যের মধ্যে মুক্তি কক্সবাজারের প্রধান নির্বাহী বিমল চন্দ্র দে সরকার, ইউএনডিপি জেলা সহায়ক মহিতোষ কুমার রায়, হেলপ কক্সবাজার নির্বাহী পরিচালক মোঃ আবুল কাশেম, প্রবীণ নারী নেত্রী খুরশীদ আরা হক, এডভোকেট সাকি কাওছার, এডভোকেট ফাহিমা আক্তার, দৈনিক কক্সবাজার পত্রিকার সিঃ সাংবাদিক মাহবুবুর রহমান, দৈনিক দেশ বিদেশের সিনিয়র সংবাদকর্মী দীপু শর্মা, কোস্ট ট্রাস্টের টীম লিডার মোঃ মকবুল আহমেদ, এফডিএসআর এর ক্লিনিক ম্যানেজার মোঃ ঈছা, পপি ম্যাকেনসীর প্রকল্প ব্যবস্থাপক শাখাওয়াত আমিন বক্তব্য রাখেন। এ সময়য় স্থানীয় সরকার শাখা, বিভিন্ন এনজিও এবং গণমাধ্যম প্রতিনিধি ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। বক্তাগণ গণমানুষের স্বার্থে সরকার ও ব্লাস্টকে গ্রাম আদালত প্রকল্পের পরিধি বাড়াতে অনুরোধ জানান। এ সময় উপস্থিতিকে গ্রাম আদালতের উপর নির্মিত একটি নাটক প্রদর্শন করা হয়।


সম্পাদনা: শামীম ইবনে মাজহার,নিউজরুম এডিটর

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।