বার্সা কোচ টিটো ভিলানোভা পদ ছাড়লেন

ক্যান্সার চিকিৎসার জন্য বার্সেলোনার কোচের পদ থেকে সরে দাঁড়ালেন স্পেনিয়ার্ড ম্যানেজার টিটো ভিলানোভা। ২০১২ সালের জুনে পেপ গার্দিওলার কাছ থেকে দায়িত্ব নেয়া ভিলানোভা এক বছর দায়িত্ব পালন শেষে ২০১৩ সালের জুনে এসে দায়িত্ব থেকে সরে দাঁড়ালেন। শুক্রবার এক ঘোষণায় বিষয়টি নিশ্চিত করেন এই ৪৪ বছর বয়সী।

ভিলানোভা ২০১১ সালের নভেম্বরে গলার টিউমারে আক্রান্ত হন। একই মাসে শল্যবিদের কাচির নিচে নিজেকে সপে দেন তিনি। কিন্তু শাপমুক্তি হয়নি। পরে আবারো ক্যান্সার দেখা দেয় তার শরীরে।

এজন্য ২০১২ সালের ডিসেম্বরে দ্বিতীয়বার চিকিৎসকের দারস্ত হন। তারপরেও পুরো সুস্থ হতে পারেননি। উপরন্তু বিশ্বের শীর্ষ একটি ক্লাব পরিচালনায় বেশ চাপে পড়েছিলেন তিনি। অথচ চিকিৎসাই তার জন্য এখন মুখ্য। এজন্য শুক্রবার ক্যান্সার চিকিৎসায় সময় দিতে সরে দাঁড়ালেন তিনি।

ভিলানোভার সরে দাঁড়ানো বিষয়ে বার্সা প্রেসিডেন্ট সান্দ্রো রোসেল বলেন, “টিটো ভিলানোভাকে তার ক্যান্সার চিকিৎসা চালিয়ে যেতে হবে। সেজন্য তিনি আর বার্সার প্রধান কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালন করতে পারবেন না। এটা আমাদের জন্য খুবই কঠিন একটি বিষয়। কিন্তু তা আমাদের মেনে নিতে হচ্ছে।”

ভিলানোভার প্রশিক্ষণে বার্সা গত বছর স্পেনিশ লিগের শ্রেষ্ঠত্ব পুনরুদ্ধার করে। তার সরে দাঁড়ানোর পর বিকল্প হিসেবে জোয়ান ফ্রান্সিস ফেরারের নাম ভাসছে। সূত্র: বিবিসি।


সম্পাদনা: শামীম ইবনে মাজহার,নিউজরুম এডিটর

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।