শনিবার, অক্টোবর 16, 2021
শনিবার, অক্টোবর 16, 2021
শনিবার, অক্টোবর 16, 2021
spot_img
Homeজেলাআইনশৃঙ্খলা কমিটিতে সিদ্ধান্ত: ফেনীতে অবশেষে বহুল আলোচিত হাউজি খেলা বদ্ধ হচ্ছে!

আইনশৃঙ্খলা কমিটিতে সিদ্ধান্ত: ফেনীতে অবশেষে বহুল আলোচিত হাউজি খেলা বদ্ধ হচ্ছে!

অবশেষে হাউজি বন্ধ করার ঘোষণা দিয়েছেন জেলা প্রশাসক মো: হুমায়ন কবির খোন্দকার। মঙ্গলবার সকালে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে আইন শৃঙ্খলা কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। সকাল ১১টায় জেলা প্রশাসকের সভাপতিত্বে সভায় উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিষদ প্রশাসক আজিজ আহাম্মদ চৌধুরী, পুলিশ সুপার পরিতোষ ঘোষ, সদর উপজেলার চেয়ারম্যান আবদুর রহমান বিকম, পিপি হাফেজ আহাম্মদ, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মীর আবদুল হান্নানসহ উপজেলা নির্বাহী কর্মর্তাগণ, থানার ভারপ্রাপ্ত ওসিসহ জনপ্রতিনিধিও প্রশাসনের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সভায় আজিজ আহাম্মদ চৌধুরী তার বক্তব্যে তিনি ফেনীতে আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতির চরম অবনতি হওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করে এবং প্রায় ২ বছর যাবত স্টেডিয়ামে হাউজি খেলা বন্ধ, শহরের মাদক ও ইয়াবার ছড়াছড়ি বেড়ে যাওয়ায় উদ্দ্যেগ প্রকাশ করে অনতি বিলম্বে প্রশাসনকে এ ব্যাপারে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য জোর দাবী জানান। এছাড়াও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আবদুর রহমান বিকম হাউজির বন্ধের সিদ্দান্তকে সঠিক বলে গ্রামে গঞ্জে, পাড়া মহল্লায় মাদক বিরোধী সভা সেমিনার করে যুব সমাজকে রক্ষা করার জন্য সকলের প্রতি উদ্বাত্ত আহ্বান জানান। সভায় অন্যান্য বক্তারা বর্তমান সরকারের শেষ সময়ে আইন শৃঙ্খলার অবনতি হওয়ার আশংকা করে প্রশাসনকে সর্তক থাকার পরামর্শ দেন। তবে সভা শেষে ফেনীর পৌরসভার কাউন্সিল বাদল হাজারী আজিজ আহাম্মদ চৌধুরীর বক্তব্যে ক্ষুব্ধ হয়ে বলেন, আপনি বেশী বাড়াবাড়ি করছেন। সব বিষয়ে আপনার নাগ গলানো উচিৎ নয় বলে মন্তব্য করেন।

জানাযায়,  ফেনীর ভাষা শহীদ সালাম স্টেডিয়ামে টানা দুই বছরেরও বেশি সময় ধরে চলছে হাউজি খেলা। জেলা ক্রীড়া সংস্থার উন্নয়নে ‘তহবিল’ সংগ্রহের দোহাই দিয়ে সিন্ডিকেট নেতারা হাউজির নামে শ্রমজীবী ও সাধারণ মানুষের পকেট কাটার এক ভয়ংকর মহোৎসবে মেতে উঠেছে। এ হাউজি থেকে রক্ষা পাচ্ছে না এলাকার যুব সমাজ ও স্কুল-কলেজ পড়–য়া ছাত্র-ছাত্রীর। যুব সমাজকে ঠেলে দিচ্ছে ভয়ানক অন্ধকারে। এ নিয়ে হাউজিস্থলের আশপাশের এলাকার হাউজির মাইকের আওয়াজে  অসুস্থ্য রোগীরা আরো অসুস্থ্য হয়ে উঠেছে। সিন্ডিকেট নেতাদের আর্শীবাদ পুষ্ট বখাটেরা এলাকায় মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে। ফলে চুরি-ডাকাতি, ছিনতাই, অপহরন ও মাদক ব্যবসাসহ নানা সামাজিক অপরাধে জড়িয়ে পড়ছে। এতোকিছুর পরও অজ্ঞাত কারনে ‘হাউজি’ নামের সর্বনাশা এ জুয়া খেলার লাগাম টেনে ধরার যেনো নেই কেউ।

এদিকে প্রায় টানা আড়াই বছর চলা হাউজি নিয়ে জনমনে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে- এলাকার সাধারণ খেটে খাওয়া মানুষকে জুয়ার ফাঁদে সর্বশান্ত করে ও যুব সমাজকে সামাজিক অবক্ষয়ের পথে ঠেলে দিয়ে এ কেমন ক্রিড়ার উন্নয়ন? ক্রীড়া সংস্থার তহবিল গঠনের আড়ালে গুটি কয়েক স্বার্থান্বেষী ব্যক্তির পকেটভারীর জন্যই কী হাউজি খেলা জিইয়ে রাখা ? এ নিয়ে শুধু ফেনী শহর নয়- পুরো জেলায় এমনকি ঢাকা-চট্টগ্রামসহ দেশে এবং দেশের বাইরে বসবাসরত ফেনীবাসীর মুখে মুখেও নানা কথা শোনা যায়। হাউজির টাকার ভাগ-বাটোয়ারা নিয়েও নানা গুঞ্জনের শেষ নেই। খোদ সরকার  দলেও এ নিয়ে বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে।

জানাগেছে, ২০১১ সালের মাঝামাঝি সময় থেকে হাউজি খেলা শুরু হওয়ার পর থেকে এ যাবত ক্রিড়া সংস্থার নামে ২৫ লাখ টাকা একটি এফডিআর করা হয়। এছাড়া ক্রিড়া সংস্থার তহবিলে আর কতো টাকা জমা হয়েছে কিংবা হাউজি থেকে আয়-ব্যয়ের হিসাব সম্পর্কে সংশ্লিষ্টদের কাছে যতোবারই জানতে চাওয়া হয়েছে তারা বিষয়টি এড়িয়ে গেছেন। তবে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সংশ্লিষ্ট একাধিক সূত্র জানায়, হাউজি থেকে প্রতি রাতে সব হিসাব চুকিয়ে আয়োজকদের পকেটে ঢুকে প্রায় দেড় থেকে দুই লাখ টাকা। এ হিসাবে গত প্রায় আড়াই বছরে কয়েক কোটি টাকা হাতিয়ে নেয় সিন্ডিকেট নেতারা।

অবশেষে আইন শৃঙ্খলার কমিটির সভায় হাউজি খেলা বন্ধ হচ্ছে এ খবর ছড়িয়ে পড়লে স্টেডিয়ামসহ আশপাশের এলাকায় স্বস্তি ফিরে আসে।


সম্পাদনা: শামীম ইবনে মাজহার,নিউজরুম এডিটর

RELATED ARTICLES
- Advertisment -spot_img

Most Popular

Recent Comments