সোমবার, নভেম্বর 29, 2021
সোমবার, নভেম্বর 29, 2021
সোমবার, নভেম্বর 29, 2021
spot_img
Homeজেলাঝিনাইদহের শৈলকুপায় কুমার নদের ঘাট দখল করে ছাত্রলীগ নেতার মার্কেট নির্মান!

ঝিনাইদহের শৈলকুপায় কুমার নদের ঘাট দখল করে ছাত্রলীগ নেতার মার্কেট নির্মান!

ঝিনাইদহের শৈলকুপায় কুমার নদে জনসাধারণের গোসলের কাজে ব্যবহৃত ঘাটের রাস্তার জায়গায় পাঁকা ভবন নির্মাণ করছেন শৈলকুপার ছাত্রলীগ কর্মী রিংকু মন্ডল। ইতোমধ্যে নদের পাড় থেকে পাঁকা পিলার উঠানোর কাজ শুরু হয়েছে। ভবন নির্মাণ হলে এলাকার শত শত মানুষের নদে নামার পথ বন্ধ হয়ে যাবে। রিংকু মন্ডল জানিয়েছেন, তিনি জেলা পরিষদ থেকে বরাদ্দ নিয়ে এই ঘর নির্মাণ করছেন। তিনি কোন দখল করেননি। অবশ্য স্থানীয় বাসিন্দারা তাদের ব্যবহারের সুবিধার্থে ঘাটের জায়গার ইজারা বাতিলের দাবি জানিয়ে জেলা পরিষদে আবেদন করেছেন। কিন্তু জেলা পরিষদ কোন প্রদক্ষেপ নিচ্ছেন না। পাক্ষা্ন্তরে রিংকু মন্ডল তার নির্মাণ কাজ দ্রুত গতিতে করে চলেছেন।

সরেজমিনে শৈলকুপার কুমার নদ এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, যে জায়গায় রিংকু মন্ডল দোকান নির্মাণ করছেন সেটি ফাজেলপুর গ্রামের মধ্যে পড়েছে। ফাজেলপুর গ্রামের ৬৬ নং মৌজায় ১ নং খতিয়ানের ৩০৪ দাগের এই জমি সরকারী রাস্তার। এই স্থানে একটি নতুন সেতু নির্মান হয়েছে। সেতুটির পাশ দিয়ে এলাকার শত শত মানুষ নদের পানিতে গোসলসহ নানা কাজে আসেন। ফাজেলপুর গ্রামের বাসিন্দা খয়বার আলী জানান, তারা কুমার নদ এর পাড়ের বাসিন্দা হওয়ায় তাদের গ্রামে কোন পুকুর বা জলাশয় নেই। গ্রামের মানুষগুলো তাদের সকল প্রয়োজনে নদ ব্যবহার করে থাকেন। আর যে স্থানে দোকান তৈরী করা হচ্ছে সেই স্থানটি গ্রামের মানুষের নদে চলাচলের একমাত্র রাস্তা। ৩০/৪০ বছরের পুরাতন এই রাস্তাটি মষে ঘাট বলে পরিচিতি। সেই মষে ঘাট পাঁকা দোকান বসিয়ে বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে। যা এলাকার মানুষের চরম ভোগান্তিতে ফেলবে। খয়বার আলী আরো জানান, তারা খবর নিয়ে জেনেছেন জায়গাটি ঝিনাইদহ জেলা পরিষদ কর্তৃপ রিংকু মন্ডলকে এক বছরের জন্য টোং ঘর করতে বরাদ্দ দিয়েছেন।

কিন্তু রিংকু মন্ডল সেখানে স্থায়ী ভাবে পাঁকা ঘর নির্মাণ করছেন। তিনি বলেন, জনসাধারনের ব্যবহারের স্থানটি জেলা পরিষদ কেন বরাদ্দ দিয়েছেন এটা বোধগম্য নয়। এই বরাদ্দ বাতিলের জন্য তারা জেলা পরিষদে গত ১৯ সেপ্টেম্বর লিখিত আবেদন করেছেন। কিন্তু জেলা পরিষদ এ ব্যাপারে এখনও কোন পদপে গ্রহণ করেননি। এলাকার একাধিক বাসিন্দা নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, জেলা পরিষদ মাত্র ৫ হাজার টাকার জন্য কেন শত শত মানুষের ব্যবহারের পথ বন্ধ করার ব্যবস্থা করলো। রিংকু মন্ডল ছাত্রলীগ কর্মী হওয়ায় তার স্বার্থের কথা চিন্তা করা হয়েছে। শত শত মানুষের চিন্তা করা হয়নি। তারা অবিলম্বে ওই বরাদ্দ বাতিল করে এলাকার মানুষের স্বার্থে সেখানে একটি পাঁকা ঘাট নির্মাণের দাবি জানিয়েছেন। জেলা পরিষদ ওই স্থানে এলাকার মানুষের গোসলের সুবিধার্থে একটি পাঁকা ঘাট নির্মাণ করবেন এটাই সকলের দাবি।  শৈলকুপা উপজেলা ছাত্রলীগের সক্রিয় কর্মী ধাওড়া গ্রামের আব্দুল গফুর মন্ডলের পুত্র রিংকু মন্ডল জানান, তিনি জেলা পরিষদ থেকে এক বছরের জন্য ৫ হাজার টাকায় ১৫৩৬ বর্গফুট জায়গা বরাদ্ধ নিয়েছেন। আর তিনি ঘর তৈরী করছেন মাত্র ৩৮০ বর্গফুট জায়গায়। বাকি জায়গা এখনও পড়ে আছে। তিনি বলেন, এলাকার যারা বলছেন ঘাটের জায়গা দখল করা হচ্ছে তারা আসলে মিথ্যা বলছেন। ঘাটের রাস্তার জায়গা তার তৈরী ঘরের পাশ দিয়ে থাকবে বলে দাবি করেন। এ ব্যাপারে জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী এ.এস.এম মৈনুর জানান, জেলা পরিষদের সকল জায়গার খাজনা দিতে হয়। ফলে জায়গা ফেলে না রেখে ভাড়া দিয়ে কিছু আয় হলে সরকার লাভবান হবেন। তবে সাধারন মানুষের চলাচলে ব্যবহৃত ঘাটের পথ বন্ধ করা যাবে না। এটা তারা তদন্ত করে দেখবেন। ইতোমধ্যে এলাকার বাসিন্দারা আবেদনও করেছেন। তিনি জানান, তদন্তক করে তারা ব্যবস্থা নিবেন।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -spot_img

Most Popular

Recent Comments