রবিবার, অক্টোবর 24, 2021
রবিবার, অক্টোবর 24, 2021
রবিবার, অক্টোবর 24, 2021
spot_img
Homeজেলারামগঞ্জে কুমারী মেয়ে তিন মাসের অন্তঃসত্বা ॥ থানায় মামলা অভিযুক্তকে গণধোলাই দিয়ে...

রামগঞ্জে কুমারী মেয়ে তিন মাসের অন্তঃসত্বা ॥ থানায় মামলা অভিযুক্তকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশ সোর্পদ

লক্ষীপুর জেলার রামগঞ্জে উপজেলায় এক কুমারী মেয়েকে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে পৌরসভার বাঁশঘর ভূঁইয়া বাড়ির মিলন মিয়ার ছেলে মোঃ হামিদ রাজু (২২) নামের এক লম্পট প্রেমিক দীর্ঘদিন ধরে দৈহিক সর্ম্পক করায় এতে কুমারী মেয়ে পান্না আক্তার তিন মাসের অন্তঃসত্বা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে ।
পান্না আক্তার (১৭) ৬নং লামচর ইউনিয়নের তাহেরপুর গ্রামের মেহের আলী পাটোয়ারী বাড়ির দিন মুজুর মোঃ শাহাজাহানের মেয়ে।
এঘটনায় অন্তঃসত্বা কুমারী মেয়ে বাদী হয়ে রামগঞ্জ থানায় অভিযুক্ত আবদুল হামিদের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে একটি মামলা দায়ের করেন। পরে অভিযোক্ত মোঃ হামিদ রাজুকে গতকাল বুধবার রাতে উপজেলা তাহেরপুর এলাকার লোকজন গণধোলাই দিয়ে পুলিশ সোপর্দ করেন।
সূত্রে জানা যায়,উপজেলার ৬নং লামচর ইউনিয়নের তাহেরপুর গ্রামে ৫নং ওয়ার্ডের মেহের আলী পাটওয়ারী বাড়ির হতদরিদ্র রিক্সা চালক মোঃ শাহজাহানের কন্যা রামগঞ্জ পৌরসভার বাশঁঘর গ্রামের ভূঁইয়া বাড়ির মিলন মিয়ার বখাটে ছেলে আবদুল হামিদের সাথে মোবাইল ফোনের রং নাম্বারের সূত্র থেকে ৬মাস আগে পান্নার সাথে তার পরিচয় হয়। সে সুবাদে তাকে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে লম্পট হামিদ রাজু পান্নার সাথে মোবাইলে কথা বার্তার এক পর্যায়ে বেশ কয়েক মাস থেকে দৈহিক মিলনে লিপ্ত হয়। যার ফলে পান্ন আক্তার অন্তঃসত্বা হয়ে পড়ে। পান্না আক্তার অন্তঃসত্বার খবর তার পরিবারে লোকজনকে জানালে তার বড় বোন তাকে ডাক্তারের কাছে নিয়ে পরীক্ষা নিরীক্ষা শেষে কর্তব্যরত ডাক্তার ধর্ষিতা পান্না তিন মাসের অন্তঃসত্বা বলে জানান। পরে পুনরায় লম্পাট হামিদ রাজু দৈহিক মিলনের উদ্ধেশ্যে বুধবার সন্ধার পর তাহেরপুর ধর্ষিতার বাড়ির পাশ্ববর্তী সুপারী বাগানে উপস্থিত হয়ে পান্নাকে মোবাইলে ফোন করলে পান্না তার পরিবারের লোকজন নিয়ে লম্পট প্রেমিক হামিদকে আটক করে থানা পুলিশকে খবর দেয়। রামগঞ্জ থানা পুলিশ খবর পেয়ে লম্পট প্রেমিক ধর্ষক হামিদ রাজুকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। থানা পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে লম্পট হামিদ রাজু পান্নার সাথে দৈহিক মিলনের কথা অস্বীকার করায় বুধবার দুইজনকেই পরীক্ষা নিরীক্ষা করার জন্য লক্ষ্মীপুর জেল হাজতে প্রেরন করা হয়েছে।
অভিযুক্ত হামিদ রাজুর মামা এবং রামগঞ্জ সরকারী হাসপাতালে সামনে আদর্শ ফার্মেসীর মালিক ডাঃ শাহআলম বাবুল জানান, আমার ভাগীনা যদি অপরাধী প্রমানিত হয় তাহলে আইনগতভাবে যা হবার হবে। এখানে আমার বলার কিছু নাই।
রামগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ এ কে এম মনজুরুল হক আকন্দ জানান, ধর্ষিতা বাদী হয়ে থানায় মামলা করেছে। তাদের দুইজনকেই আইনের আওতায় এনে লক্ষ্মীপুর কোর্টে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।


সম্পাদনা: শামীম ইবনে মাজহার,নিউজরুম এডিটর

RELATED ARTICLES
- Advertisment -spot_img

Most Popular

Recent Comments