রোববার হরতাল জামায়াতের

মানবতাবিরোধী অপরাধে জামায়াত ইসলামীর সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল আবদুল কাদের মোল্লার ফাঁসি কার্যকরের প্রতিবাদে রোববার হরতালসহ চার দিনের কর্মসূচি ঘোষণা করেছে জামায়াতে ইসলামী।

কাল শুক্রবার দেশের সকল মহানগরী, জেলা, উপজেলায় গায়েবানা জানাযা। শনিবার আবদুল কাদের মোল্লাসহ সকল শহীদদের জন্য দোয়া অনুষ্ঠান। রোববার সকাল-সন্ধ্যা সারাদেশে হরতাল ও মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে আলোচনার কর্মসূচি ঘোষণা করেছে জামায়াতে ইসলামী।

কাদের মোল্লার ফাঁসি কার্যকর হওয়ার পর বৃহস্পতিবার রাতে এক বিবৃতিতে কর্মসূচি ঘোষণা করেন জামায়াতের ভারপ্রাপ্ত আমির মকবুল আহমাদ।

বিবৃতিতে মকবুল আহমাদ বলেন, “বাংলাদেশের জনগণ ও বিশ্ব সম্প্রদায়ের আহ্বান অগ্রাহ্য করে সরকার সুপরিকল্পিতভাবে আব্দুল কাদের মোল্লাকে অত্যন্ত নির্মমভাবে হত্যা করেছে। সরকারের এ নৃশংস, বর্বরোচিত, সুপরিকল্পিত হত্যাকাণ্ডের তীব্র নিন্দা, প্রতিবাদ জানাচ্ছি ও ক্ষোভ প্রকাশ করছি। সম্পূর্ণ অন্যায়ভাবে সরকার তাকে হত্যা করে নিজেদের রাজনৈতিক মৃত্যু ডেকে এনেছে। শহীদ আব্দুল কাদের মোল্লার প্রতিফোঁটা রক্ত তার হত্যাকাণ্ডের সাথে যারা জড়িত তাদের প্রত্যেকের জন্য অভিশাপ বয়ে আনবে। তাদের ধ্বংস অনিবার্য। তাদের করুণ পরিণতি দেশবাসী অতি শিগগিরই প্রত্যক্ষ করবে।”

তিনি নেতাকর্মীদের আহ্বান জানিয়ে বলেন, “আমি এদেশের ইসলামী আন্দোলনের সর্বস্তরের জনশক্তি ও দেশবাসীকে চরম ধৈর্য্য ও সহনশীলতার সাথে পরিস্থিতি মোকাবেলা করার ও সরকারের এই নৃশংস পাশবিকতার বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধভাবে প্রতিরোধের প্রাচীর গড়ে তোলার আহ্বান জানাচ্ছি।”

তিনি হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে জামায়াতের ভারপ্রাপ্ত আমির বলেন, “আব্দুল কাদের মোল্লার রক্তে রঞ্জিত বাংলাদেশে ইসলাম প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে দেশের জনগণ এ হত্যার বদলা নেবে। এ জালেম, খুনি সরকারের পতন সময়ের ব্যাপার মাত্র।”

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।