শুক্রবার, অক্টোবর 22, 2021
শুক্রবার, অক্টোবর 22, 2021
শুক্রবার, অক্টোবর 22, 2021
spot_img
Homeউপজেলাসোনাদিয়া চ্যানেলে আবারো জলদস্যুদের উৎপাত

সোনাদিয়া চ্যানেলে আবারো জলদস্যুদের উৎপাত

মহেশখালী সোনাদিয়া চ্যানেলে জলদস্যুদের উৎপাত প্রতিনিয়ত বৃদ্ধির ফলে জেলে পরিবার সব সময় উৎকন্ঠায়। প্রাপ্ত তথ্যমতে, মহেশখালীর বিভিন্ন ইউনিয়নের এক শ্রেনীর সংঘ বদ্ধ স্ব-শস্ত্র জলদস্যুরা নিয়মিত ভাবে সাগরে ডাকাতি,মাঝি মাল্লা অপহরন এবং টোকেন দিয়ে বোট প্রতি ৫০ হাজার করে চাদাঁ আদায়ের কাজে লিপ্ত রয়েছে অনাদায়ে সাগরে জেলেদের ফিশিং নিষিদ্ধের হুমকি।

মহেশখালীর বোট মালিকেরা জানান, সাগরের মাছ আহরণ করার জন্য ট্রলার পাঠিয়ে দ্বীপে ফিরে না আসা পর্যন্ত জলদস্যুদের কবলে পড়ার আশংকায় থাকি। জেলেরা জানায়, বিশেষ করে সোনাদিয়া, ঘটিভাংগা, ধলঘাটা মাতারবাড়ী, কালারমার ছড়া ও চকরিয়া এলাকার কিছু জলদস্যুদের হাতে জেলে পরিবার গুলো সব সময় জিম্মি। এ ব্যাপারে একাধিক ট্রলার মালিকরা জানান, নিয়মিত মাসোহারা দিতে অপারগ প্রকাশ করলে পরবর্তীতে ট্রলার সাগরে মাছ ধরতে যাওয়া মাত্রই উৎপেতে থাকা জলদস্যুরা ইঞ্জিন, জাল, মাছ, তেল ও প্রয়োজনীয় সরঞ্জামাদি লুট করে খালি ট্রলারটি ছিদ্র করে সাগরে ডুবিয়ে দেয় যার ফলে মাঝি মাল্লারা সাতাঁর কেটে কুলে ফিরে আসলে ও অনেকে সাগরে প্রান হারায়।

অপর সুত্রে জানা যায়, কুতুবজোম ইউনিয়নের কিছু চিহ্নিত জলদস্যুর সার্বিক সহযোগীতায় এসব ঘটনা ঘটে থাকে।  জলদস্যুরা মাদক পাচার, চোরাচালান, ডাকাতি সহ নানান অপকর্ম পরিচালনার নিরাপদ জায়গা হিসাবে সোনাদিয়াকে বেছে নিয়েছে। সম্প্রতি মহেশখালী থানার ওসি ও পুলিশের উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের নেতৃত্বে বারংবার সোনাদিয়া চ্যানেলে অভিযান চালিয়ে যাচ্ছে তাদের দাবী যতদিনই লাগুগ এবং যত বড়ই জলদস্যুর গড়ফাদার হোক শিঘ্রিই গ্রেপ্তার করা হবে তাতে কোন ধরনের সন্দেহ নাই।

এ ব্যাপারে মহেশখালী থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আলমগীর হোছেন জানান, যে কোন কিছুর বিনিময়ে হউক মহেশখালী কে সন্ত্রাসী, জলদস্যু ও অপরাধ মুক্ত করার আপ্রান চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি জনগনের সার্বিক সহযোগীতা পেলে ইনশাল্লাহ সব অপরাধ শিঘ্রিই বন্ধ হয়ে যাবে।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -spot_img

Most Popular

Recent Comments