বৃহস্পতিবার, জানুয়ারী 20, 2022
বৃহস্পতিবার, জানুয়ারী 20, 2022
বৃহস্পতিবার, জানুয়ারী 20, 2022
spot_img
Homeজাতীয়মার্চ মাসে বিচারবহির্ভূত হত্যার মহোৎসব: অধিকার

মার্চ মাসে বিচারবহির্ভূত হত্যার মহোৎসব: অধিকার

দেশের শীর্ষস্থানীয় মানবাধিকার সংগঠন অধিকার জানিয়েছে, মার্চ মাসে রাজনৈতিক সহিংসতায় ২২ জন নিহত এবং ১,৩৫০ জন আহত হয়েছেন। এ সময় আওয়ামী লীগের ২৯টি এবং বিএনপির ৩টি অভ্যন্তরীণ সংঘাতের ঘটনা রেকর্ড করা হয়েছে। এই সময়ে আওয়ামী লীগের অভ্যন্তরীণ সংঘাতে ৩জন এবং বিএনপির অভ্যন্তরীণ সংঘাতে ১জন নিহত হয়েছেন বলে জানা গেছে।

মার্চ মাসে ১৪জন বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ডের শিকার হয়েছেন বলে জানা গেছে। বিচারবহির্ভূত হত হত্যাকাণ্ডের শিকারে ১৪ জনের মধ্যে ৭ জন তথাকথিত ‘ক্রসফায়ার/এনকাউন্টার/বন্দুকযুদ্ধে’ মারা গেছেন বলে অভিযোগ রয়েছে।

এদের মধ্যে র‌্যাবের হাতে ৪জন এবং পুলিশের হাতে ৩ জন মারা গেছেন বলে জানা গেছে। এই সময়ে পুলিশ হেফাজতে নির্যাতনে ১জন মৃত্যুবরণ করেছেন।

মার্চ মাসে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) ১ জনকে পিটিয়ে হত্যা করেছে।

এ সময় ৪ জন ‘অসুস্থাতজনিত কারণে’ কারাগারে মৃত্যুবরণ করেছেন বলে জানা গেছে।

এ সময় ১ জন সাংবাদিক নিহত, ৭ জন আহত এবং ৩ জন হুমকির সম্মুখীন হয়েছেন বলে অভিযোগ রয়েছে। অধিকার সাংবাদিকদের ওপর হামলার ঘটনার নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করছে এবং সেই সঙ্গে হামলাকারীদের গ্রেপ্তার ও বিচারের দাবি জানাচ্ছে।

মার্চ মাসে ১১ ব্যক্তি গণপিটুনিতে মারা গেছেন।

প্রায়ই দেশের বিভিন্ন স্থানে গণপিটুনি দিয়ে মানুষ হত্যা করা হচ্ছে। মানুষের মধ্যে আইনের প্রতি অশ্রদ্ধা ও অস্থিরতার প্রবণতা বৃদ্ধি পাচ্ছে। মূলত ফৌজদারি বিচার ব্যবস্থার দুর্বলতার কারণে এবং বিচার ব্যবস্থার প্রতি আস্থা কমে যাওয়ায় মানুষের মধ্যে নিজের হাতে আইন তুলে নেবার প্রবণতা দেখা দিয়েছে বলে অধিকার মনে করে।

অধিকারের তথ্য অনুযায়ী গত মাসে ভারতীয় সীমান্ত রক্ষীবাহিনী বিএসএফ ২ জন বাংলাদেশিকে গুলি করে হত্যা করেছে। এ সময় গুলিতে আহত হয়েছে ৩ জন। একই সময়ে বিএসএফ’র হাতে অপহৃত হয়েছেন ১২জন।

উপজেলা নির্বাচনে ব্যাপক কারচুপি, সহিংসতা ও বেশ কয়েকজনের নিহত হওয়ার তথ্য তুলে ধরে অধিকার বলছে, স্বচ্ছ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের ব্যবস্থা সুনিশ্চিত করা নির্বাচন কমিশনের সাংবিধানিক দায়িত্ব। ক্ষমতাসীন দলের প্রতি আনুগত্য না দেখিয়ে অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের ব্যবস্থা করা ছিল নির্বাচন কমিশনের অবশ্য কর্তব্য। অথচ এই নির্বাচন কমিশন একটি সুষ্ঠু , অবাধ নিরপেক্ষ নির্বাচন করতে ব্যর্থ হয়েছে।

অধিকার মনে করে, বাংলাদেশে শক্তিশালী একটি নির্বাচন কমিশন গঠন করা অত্যন্ত জরুরি যা দ্রুততম সময়ে একটি নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠিত করবে।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -spot_img

Most Popular

Recent Comments