অফিস থেকে ডেকে নিয়ে সরকারি কর্মচারিকে পিটিয়ে জখম

লাকসাম উপজেলা পরিষদের এক কর্মচারিকে  বৃহস্পতিবার অফিস থেকে ডেকে নিয়ে প্রকাশ্যে বেধড়ক পিটিয়ে জখম করেছে দুর্বৃত্তরা। আহত ওই কর্মচারির নাম মো. নুরুল আলম মজুমদার ওরফে বাচ্চু। তিনি উপজেলা যুব উন্নয়ন কার্যালয়ের ক্রেডিট সুপারভাইজার। তাঁর বাড়ি একই উপজেলার মুদাফরগঞ্জ ইউনিয়নের কাঁঠালিয়া গ্রামে।

উপজেলা যুব উন্নয়ন কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, ওই দিন দুপুর ১.১০ মিনিটের দিকে চার-পাঁজজন ব্যক্তি উপজেলা যুব উন্নয়ন কার্যালয়ে আসেন। তাঁরা কার্যালয়ের সামনে বারান্দায় দাঁড়িয়ে কথা আছে বলে ক্রেডিট সুপারভাইজার মো. নুরুল আলম মজুমদারকে ডেকে অফিস থেকে বাইরে নিয়ে যান। এ সময় কিছু বুঝে উঠার আগেই তাঁরা (দুর্বৃত্ত) অতর্কিত ভাবে ওই কর্মচারিকে বেধড়ক পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করে দ্রুত পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয় লোকজন আহত ওই কর্মচারিকে উদ্ধার করে লাকসাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। তবে ঘটনার সঠিক কারণ জানা যায় নি।

লাকসাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগে কর্তব্যরত উপসহকারী চিকিৎসা কর্মকর্তা তোফায়েল আহমেদ ওই কর্মচারিরকে হাসপাতালে ভর্তির বিষয় নিশ্চিত করে প্রথম আলোকে বলেন, তাঁর নাকের ভিতর একটি হাঁড় ভেঙ্গে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ হয়েছে।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ওই কর্মচারি বলেন, বিষয়টি তিনি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এবং উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানকে অবহিত করেছেন। তাঁরা এই ঘটনায় তাঁকে থানায় মামলা দায়েরের পরামর্শ দেন। এই ব্যাপারে লাকসাম থানায় মামলা রুজুর প্রস্তুতি চলছে।

লাকসাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনোয়ার হেসেন চৌধুরী জানান, এই ঘটনায় এখন পর্যন্ত কোন মামলা হয় নি। মামলা হলে ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
লাকসাম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মদ শফিউল আলম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের খুঁজে বের করে তাঁদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনগত ব্যবস্থা নিতে লাকসাম থানার ওসিকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।