নাঙ্গলকোটে দুধর্ষ ডাকাতি: গুলিবিদ্ধসহ আহত ১০, গ্রেফতার ২

কুমিল্লার নাঙ্গলকোট উপজেলায় গত সোমবার মধ্যরাতে আদ্রা গ্রামে ওসমানের বাড়িতে আবদুল মতিন ও আবুল বশরের ঘরে এক দুধর্ষ ডাকাতি ও বাড়িঘর ভাংচুর করার ঘটনা ঘটেছে। ডাকাত দল নগদ ২ ল টাকা ও ৪ভরি স্বর্ণালংকার লুট করে নিয়ে যায়। স্থানীয় সূত্রে

জানা যায়, সোমবার রাত ২টার সময় ডাকাত দল বাড়িতে গিয়ে আবদুল মতিন ও আবুল বশরকে নাম ধরে ডাকাডাকি করে। তারা ঘরের দরজা খুললে ১৫/২০ জনের ডাকাত দল দুটি ঘরে ঢুকে হাজী ওসমান আলীর ছেলে আবদুল মতিন (৭০), জোহরা বেগম (৬০), আবুল বশর (৬৫), কাউছার বেগম (২৬) ও লিটন (২০)সহ ১০জনকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে ও গুলি করে আহত করে। এদের মধ্যে গুলিবিদ্ধ লিটনের অবস্থা আশংকাজনক।

ডাকাতরা আবুল বশরের ঘর থেকে নগদ দেড় লক্ষ্য টাকা ও ২ভরি স্বর্ণ এবং আবদুল মতিনের ঘর নগদ ৫০হাজার টাকা ও ২ভরি স্বর্ণালংকার লুটে নেয়। এ ব্যাপারে থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম পিপিএম জানান, পূর্ব শত্র“তার জের ধরে হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা চালিয়েছে।

আহতদের মধ্যে লিটন, মতিন ও বশরকে আশংকাজনক অবস্থায় কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ব্যাপারে জোহরা বেগমের ভাই মাষ্টার মোশাররফ হোসেন বাদী হয়ে মামলা দায়ের করলে পুলিশ গতকাল মঙ্গলবার সকালে ভোলাইন গ্রামের আবদুর রেজ্জাকের ছেলে আবদুল মমিন ও লিটনকে গ্রেফতার করে।

 

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।