প্রবাসী স্বামীর ৩০ লাখ টাকার মালামাল শিশু কন্যাকে নিয়ে গৃহবধু উধাও

লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে প্রবাসী স্বামীর অনুপুস্থিতে ব্যাংকে জমানো স্বর্ণলংকার ও নগদ ১৫ লাখ টাকাসহ বাড়ীতে রাখা প্রায় ৩০ লাখ টাকাম মালামাল নিয়ে প্রেমিকের সাথে গৃহবধুর উধাও হওয়ার ঘটনায় তোলপাড় চলছে। এঘটনায় শনিবার (৭ জুন) দুপুরে ক্ষতিগ্রস্থ প্রবাসী মিজানুর রহমান বাদী হয়ে টাকা ও শিশু মেয়েকে ফেরৎ চেয়ে স্ত্রী ও তার প্রেমিকের বিরুদ্ধে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

 
অভিযোগে জানাযায়, কেরোয়া ইউনিয়নের পাশবর্তি মাসিমপুর গ্রামের আব্দুল মতিনের ছেলে প্রবাসী মিজানুর রহমান প্রায় ১৪ বছর আগে উক্তর কেরোয়া গ্রামের আহসান উল্যা ড্রাইভারের মেয়ে নুরজাহান বেগম সুমিকে বিয়ে করেন। বিয়ের দুই মাস পরে মিজান দুবাই চলে যান। তাদের সংসারে একটি কন্যা সন্তান রয়েছে। এসুযোগে তার স্ত্রী নুরজাহান গত শুক্রবার তার প্রেমিক ফরিদগঞ্জ উপজেলার রগুনাথপুর গ্রামের আমান উল্যার ছেলে বোরহানকে নিয়ে ব্যাংকে জমানো স্বামীর নগদ ১৫ লাখ টাকা ও স্বর্ণলংকারসহ প্রায় ৩০ লাশ টাকার মালামাল নিয়ে উধাও হয়ে যায়। খোজাখুজির একপর্যায়ে শহরের শাহী হোটেলের পাশে প্রেমিকসহ নুরজাহানকে আটক করা হয়। এঘটনায় টাকাগুলো, শিশু মেয়েকে ফেরৎ চাইলে ও প্রতিবাদ জানালে তারা মিজানকে মারধর করে বের করে দেয়। পরে বাধ্য হয়ে মিজান থানায় অভিযোগ করেন।
এঘটনায় গৃহবধু নরজাহান ও তার প্রেমিক বোরহান উদ্দিন কোন বক্তব্য দিতে রাজি হয়নি।

 
রায়পুর থানার ওসি একেএম মনঞ্জুরুল হক আকন্দ বলেন, ক্ষতিগ্রক্ষ প্রবাসী মিজানুর রহমানের লিখিত অভিযোগটি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।