কুমিল্লায় দুই গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

কুমিল্লায় পৃথক দুই ঘটনায় দুই গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। কুমিল্লা সদর দণি উপজেলার বাগমারা উত্তর ইউনিয়নের চেঙ্গাহাটা গ্রামের নীলা বেগম (৩০) ও নাঙ্গলকোট উপজেলার পেরিয়া ইউনিয়নের দৌলতপুর গ্রামের রহিমা বেগম (২১) নামের দুই গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

 
রবিবার বিকালে পুলিশ লাশগুলো উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পৃথক ভাবে কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেছে। নিহত নীলা বেগম সদর দণি উপজেলার চেঙ্গাহাটা গ্রামের রবিউল হোসেনের স্ত্রী এবং তিনি ৪ মাসের অন্ত:সত্ত্বা ছিলেন বলে পরিবারের লোকজন জানিয়েছে। রহিমা বেগম নাঙ্গলকোট উপজেলার দৌলতপুর গ্রামের হাফেজ জামাল হোসেনের স্ত্রী। গত পাঁচ মাস পূর্বে জামালের সাথে রহিমার বিয়ে হয়। রহিমা একই উপজেলার বঙ্গড্ডা ইউপির দাঁড়াচৌঁ গ্রামের আব্দুর রহিমের মেয়ে।

 
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, পারিবারিক কলহের জের ধরে গত কয়েকদিন নীলা বেগম ও তার স্বামী রবিউলের সঙ্গে মনোমালিন্যতা চলে আসছিল। রবিবার ভোরে ঘরের সিলিং ফ্যানের সঙ্গে ফাঁস লাগিয়ে নীলা বেগম আত্মহত্যা করেন। সদর দণি মডেল থানার এসআই হারুন জানান, খবর পেয়ে দুপুরে ঘটনাস্থলে গিয়ে মহিলার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয় এবং লাশের ময়নাতদন্তের জন্য বিকালে কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন পাওয়ার পর মৃত্যুর কারণ জানা যাবে।

 

এদিকে নাঙ্গলকোট উপজেলার দৌলতপুর গ্রাম থেকে রবিবার দুপুর আড়াইটায় রহিমা বেগমের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে সুরত হাল রিপোর্ট তৈরি করে ময়না তদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল হাসপাতালে প্রেরণ করেছে। রোববার ভোরে রহিমা আতœহত্যা করে বলে ধারনা করা হচ্ছে। কি কারনে তিনি আতœহত্যা করেছেন তা জানা যায়নি।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।