অবরোধ সহ কঠোর কর্মসূচী পালন করে জেলার ৬টি উপজেলা অচল করে দেয়া হবে।

১৬ জুন, বিএনপি নেতারা বলেন, বিএনপি নেতা মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী মিনারকে একরাম হত্যা মামলায় সরকার দলীয় প্রভাবশালী নেতাদের ইশারায় প্রশাসন তাকে কৌশলে আসামী করে আটক করে রেখেছে। অনতি বিলম্বে মিনারকে মুক্তি দেয়া না হলে হরতাল, অবরোধ সহ কঠোর কর্মসূচী পালন করে জেলার ৬টি উপজেলা অচল করে দেয়া হবে।

 
মিনারের মুক্তির দাবীতে ফেনীর ফুলগাজী উপজেলা মাহতাব মিনার মুক্তি পরিষদের উদ্যোগে প্রতিবাদ সমাবেশ রবিবার সন্ধ্যায় ফুলগাজী উপজেলার মুন্সিরহাট বাজারে বিএনপি নেতারা এসব কথা গুলো বলেন।

 
সমাবেশে ফুলগাজী উপজেলা মাহতাব মিনার মুক্তি পরিষদের সভাপতি গোলাম রসুল মজুমদার গোলাপের সভাপতিত্বে ও সাধারন সম্পাদক ফুলগাজী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল হোসেন এর পরিচালনায় প্রধান অতিথি ছিলেন ফেনী জেলা বিএনপি সভাপতি এডভোকেট আবু তাহের।

 
সমাবেশে আরো উপস্থিত ছিলেন ফেনী জেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক জিয়া উদ্দিন মিস্টার, সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট মেজবা উদ্দিন খান সহ জেলা ও উপজেলা নেতৃবৃন্দ।

 

বক্তারা বলেন, গত ২০ মে ফেনীর একাডেমী রোডস্থ বিলাসী সিনেমা হলের সামনে প্রকাশ্য দিবালোকে নিজ গাড়ীতে ফুলগাজী উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি একরামুল হক একরামকে গুলি করে, পুড়িয়ে নৃশংসভাবে হত্যা করে তাদের দলীয় সন্ত্রাসীরা।

 

 

হত্যার পরিকল্পনাকারী আওয়ামী লীগের, হত্যাকারী আওয়ামী লীগের এবং যাকে হত্যা করা হয়েছে তিনিও আওয়ামী লীগের নেতা। কিন্ত মিনার বিএনপি নেতা হওয়ায় তার ওপর হত্যার দোষ দিচ্ছে সরকার দলীয় প্রভাবশালী একটি মহল ও তাদের অনুগত প্রশাসন। ইতিমধ্যে এ হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী আসামীদেরকে আটকের পর ১৬৪ ধারায় জবানবন্দী নিলেও কেউ মিনারের নাম বলেনি।

 

 

এরপরও সরকার দলীয় প্রভাবশালী নেতাদের ইশারায় প্রশাসন মিনারকে আসামী করে আটক করে রেখেছে। অনতি বিলম্বে মিনারকে মুক্তি দেয়া না হলে হরতাল, অবরোধ সহ কঠোর কর্মসূচী পালন করে জেলার ৬টি উপজেলা অচল করে দেয়া হবে।

 
উল্লেখ্য, ফুলগাজী উপজেলা বিএনপি নেতা ও জেলা তাঁতী দলের আহবায়ক মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী মিনারকে রিমান্ড শেষে আদালত তাকে কারাগারে পাঠালে তিনি হৃদরোগ ও কিডনীজনিত রোগে অসুস্থ্য হয়ে পড়লে তাকে ফেনী সদর হাসপাতার থেকে ঢাকা হৃদরোগ ইনষ্টিটিউটে প্রেরণ করা হয়। বর্তমানে মিনার পুলিশী হেফাজতে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।