ঢাকা ও চট্টগ্রামের সঙ্গে রেল যোগযোগ চায় ভারতের ত্রিপুরা রাজ্য সরকার

ঢাকা ও চট্টগ্রামের সঙ্গে রেল যোগযোগ চায় ভারতের ত্রিপুরা রাজ্য সরকার। ত্রিপুরার পরিবহনমন্ত্রী মানিক দে বলেছেন, ঢাকা এবং চট্টগ্রাম বন্দরের সঙ্গে এ রাজ্যের সংযোগ ঘটলে ত্রিপুরা যেমন উন্নয়নের ক্ষেত্রে অগ্রসর হবে, ঠিক তেমনি দ্রুত উন্নয়ন ঘটবে সমগ্র উত্তর-পূর্বাঞ্চলের।

 

ত্রিপুরার বিশ্রামগঞ্জের সিপাহীজলা জেলার পরিবহন কার্যালয়ের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে শনিবার এ আশা প্রকাশ করেন ত্রিপুরার এই মন্ত্রী। সোমবার উত্তর-পূর্ব ভারতের প্রভাবশালী বাংলা দৈনিক যুগশঙ্খ এ খবর দিয়েছে।

 

বাংলাদেশের ভূখণ্ড ব্যবহার করে কলকাতা থেকে ত্রিপুরায় ১০ হাজার টন খাদ্যশস্য পরিবহনে ট্রানজিট সুবিধা পাওয়ার পর ত্রিপুরার পরিবহনমন্ত্রী এই আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন।

 

সম্প্রতি আন্তঃমন্ত্রণালয় বৈঠকে ১৯৭২ সালের অভ্যন্তরীণ নৌবাণিজ্য প্রটোকল অনুযায়ী ত্রিপুরায় খাদ্য পরিবহনে ট্রানজিটের চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে সরকার।
আগামী মাসের প্রথম সপ্তাহেই খাদ্য পরিবহনের কাজ শুরু করতে পারে ভারত। এর আগে ত্রিপুরার পালাটানা বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণের জন্যও এ প্রটোকলের মাধ্যমেই ভারতকে ট্রানজিট দেয়া হয়েছিল।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।