রাফিউর রাব্বির আবেদন কার্যতালিকা থেকে বাদ

নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের উপনির্বাচনে অংশ নেওয়ার বিষয়ে নির্বাচন কমিশন কর্তৃক রাফিউর রাব্বির প্রার্থিতা খারিজের বিরুদ্ধে করা রিট আবেদন কার্যতালিকা থেকে বাদ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

 

সোমবার রিটটির শুনানির এক পর্যায়ে আইনজীবীর আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিচারপতি মির্জা হোসেইন হায়দার ও বিচারপতি মুহাম্মদ খুরশীদ আলম সরকার এ আদেশ দেন। আদালতে আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন এডভোকেট শাহ মো. মুনীর শরীফ।

 

তিনি সাংবাদিকদের জানান, আবেদনটি আদালত কার্য তালিকা থেকে বাদ দিয়েছেন। এরপর অন্য কোনো বেঞ্চে যাবেন কিনা জানতে চাইলে মুনীর শরীফ বলেন, এ বিষয়ে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত নেইনি। রিটকারী রাফিউর রাব্বির সঙ্গে যোগযোগ করা হলে তিনি বলেন, ‘আমি এখনো বিষয়টি জানি না। আইনজীবীর সঙ্গে কথা বলে দেখি কী করা যায়।’

 

ঋণ খেলাপি হওয়ায় ও স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে জমা দেয়া ১ শতাংশ ভোটারের সমর্থন তালিকায় ত্রুটি থাকায় গত ১ জুন রবিবার মনোনয়নপত্র বাছাইয়ের দিন নারায়ণগঞ্জ-৫ (সদর-বন্দর) আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী রাফিউর রাব্বির মনোনয়নপত্র বাতিল করেন রিটার্নিং কর্মকর্তা মিহির সারওয়ার মোর্শেদ।

 
এরপর প্রার্থিতা ফিরে পেতে রাফিউর রাব্বি নির্বাচন কমিশনে আপিল করেন। কিন্তু ৮ জুন আপিল আবেদন খারিজ করে দেন নির্বাচন কমিশন। নির্বাচন কমিশনের এ সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে ৯ জুন রিট করেন রাফিউর রাব্বি। গত ২৯ এপ্রিল সংসদ সদস্য নাসিম ওসমানের মৃত্যুতে আসনটি শূন্য হয়। আগামী ২৬ জুন ওই আসনের উপর্নিবাচন অনুষ্ঠিত হবে।

 
এ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন জাতীয় পার্টির প্রার্থী সেলিম ওসমান, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের প্রার্থী শফিকুল ইসলাম দেলোয়ার, নাগরিক পরিষদের প্রার্থী আওয়ামী লীগ থেকে নির্বাচিত সাবেক সংসদ সদস্য এস এম আকরাম ও স্বতন্ত্র প্রার্থী এডভোকেট মামুন সিরাজুল মজিদ।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।