ভারতের মুসলমানরা খাঁটি দেশপ্রেমিক, তারা দেশের সাথে বিশ্বাসঘাতকরা করবেন না: মোদি

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেছেন, ভারতের মুসলমানরা দেশপ্রেমিক এবং তারা দেশের সাথে বিশ্বাসঘাতকরা করবেন না। ভারতে আল-কায়েদা ব্যর্থ হবে বলেও মন্তব্য করেছেন হিন্দু জাতীয়তাবাদী নেই নেতা। মে মাসে প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর প্রথমবারের মত বিদেশি কোনো গণমাধ্যম হিসেবে সিএনএনকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে মোদি একথা বলেন।

 

মোদি বলেন, ‘ভারতের মুসলমানরা ভারতের জন্যই বেঁচে থাকবেন, মরবেনও ভারতের জন্য। তারা ভারতের জন্য খারাপ কিছুই চাইবেন না। কেউ যদি মনে করেন যে ভারতের মুসলমানরা তাদের কণ্ঠে কণ্ঠ মিলাবেন তাহলে তারা মরীচিকার পেছনে ছুটছেন।’ আগামী সপ্তাহে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার সাথে বৈঠকের আগে সিএনএন মোদির এ সাক্ষাৎকারটি নিল, যেটি প্রচার করা হবে রবিবার।

 

ভারতের কয়েকটি রাজ্যে মুসলমানদের ওপর নিপীড়নের কারণ দেখিয়ে চলতি মাসের শুরুর দিকে আল-কায়েদা দক্ষিণ এশীয় শাখা খোলার ঘোষণা দেয়। এর মধ্যে মোদির নিজ রাজ্য গুজরাটের নামও রয়েছে যেখানে ২০০২ সালে এক মুসলিম বিরোধী দাঙ্গায় সহস্রাধিক লোক নিহত হয়, যখন তিনি ছিলেন এই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী।

 

সে সময় দাঙ্গা নিয়ন্ত্রণে মোদির অনীহা ছিল বলে সমালোচনা আছে। ভারতের মোট জনসংখ্যার ১৫ শতাংশ বা প্রায় ১৭.৫ কোটি লোক মুসলমান। ভারতের মুসলমানদের একটি ক্ষুদ্র অংশ আল-কায়েদায় যোগ দিয়েছে কেন জানতে চাইলে মোদি বলেন, এটা কোনো দেশ বা বর্ণের ব্যাপার নয়, এটা হলো মানবিকতা ও অমানবিকার লড়াই। বিজেপি ক্ষমতায় আসার পর প্রধানমন্ত্রী মোদি মুসলমানদের ব্যাপারে নমনীয় নীতি গ্রহণ করলেও তার দলের বহু নেতা ও মন্ত্রী মুসলিমবিরোধী কথাবার্তা অব্যাহত রেখেছেন।

 

সূত্র: রয়টার্স

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।