‘উলামায়ে কেরামকে চলার পথে কেবলা ঠিক করতে হবে’ : আল্লামা নুরহোসাইন কাসেমী

জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় সিনিয়র সহসভাপতি ও ঢাকা মহানগর হেফাজতে ইসলামে আহবায়ক আল্লামা নুর হোসাইন কাসেমী বলেছেন, বাংলাদেশে উলামায়ে দেওবন্দের সঠিক নেতৃত্বের অভাবের কারনেই আমরা ন্যায্য অধিকার থেকে বঞ্ছিত । তাই বাংলাদেশী উলামায়ে দেওবন্দকে চলার পথে নিজেদের কেবলা ঠিক করতে হবে। আমরা যদি আমাদের কেবলা ঠিক করে চলতে পারি সে দিন আর বেশী দুরে নয় , যে দিন বিজয় আমাদের পদচুম্বন করবে। আকাবিরে দেওবন্দের রাজনৈতিক প্লাটফরম হলো জমিয়ত।  জমিয়তকে দেওবন্দি কাফেলা উল্লেখ করে বলেন, আমাদের সকল কেই  জমিয়তের পতাকাতলে এসে সমবেত হতে হবে। তিনি বলেন, ওয়াহি ভিত্তিক শিক্ষা ছাড়া জাতির শান্তি ও কল্যান আশাকরা যায়না। তাই ছাত্র সমাজকে কোরান-সুন্নাহ আলোকে জীবন গঠনের প্রতি গুরুত্বারোপ করেন।
গতকাল  শুক্রবার সকালে জামিয়া মাদানীয়া বারিধারা ঢাকায় ছত্রি জমিয়ত আয়োজিত তারবিয়তি মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন। মাওলানা হাবিবুল্লাহ মাহমুদ কাসেমীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মাহফিলে অন্যান্যদের মধ্যে তারবিয়াত প্রদান করেন, জমিয়তের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক শায়খুল হাদীন উবায়দুল্লাহ ফারুক, মাওলানা নাজমুল হাসান,মাওলানা তাফাজ্জুল হক আজিজ , ছাত্র জমিয়তের কেন্দ্রীয় সভাপতি মাওলানা শরীফুল ইসলাম প্রমুখ।
এছাড়া জমিয়ত নেতা মাওলানা মুতিউর রহমান গাজিপুরী,ছাত্র নেতা তোফায়েল গাজালী,যুব নেতা রুহুল আমীন নগরী, ছাত্র নেতা শাহিদ হাতেমীসহ প্রায় সহস্রাধিক নেতাকর্মী মাহফিলে অংশ গ্রহন করেন। পরিচালনায় ছিলেন, মাওলানা নাসির আহমদ,মাওলানা মুতিউর রহমান । সংগীত পরিবেশন করেন, মাহমুদ হুযাইফা ও সোহাইল আহমদ। মাওলানা উবায়দুল্লাহ ফারুক  ১৮৫৭ সালের উপমহাদেশের স্বাধীনতা আন্দোলনের ইতিহাস উল্লেখ করে বলেন, বংশে সুত্রে যদি কেউ বাংলাদেশের রাষ্ট্রপরিচালনা করতে চায় , তাহলে উলামায়ে কেরামই এর প্রকৃত দাবীদার।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।