রাজধানীতে মধ্যরাত থেকে বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক হয়েছে: বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড

নজিরবিহীন বিপর্যয়ের পর শনিবার মধ্যরাতে বিদ্যুৎ পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়েছে। রাত পৌনে তিনটার দিকে চাহিদার সমপরিমাণ প্রায় ৪,১৫০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন হয়। এরপরই দেশজুড়ে বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক হয় বলে জানিয়েছে বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড।

 

শনিবার রাত সাড়ে ১০টা নাগাদ ৩,০৬৫ মেগাওয়াট বিদ্যুত উৎপাদন হলে প্রথম বিদ্যুৎ পায় রাজধানীবাসী। এরপর কয়েক ঘণ্টা পর আবারো তা বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। এরপর রাতে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয় বলে বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের জনসংযোগ পরিদপ্তরের পরিচালক সাইফুল হাসান চৌধুরী জানান।

 

রবিবার দিনের বেলা বিদ্যুৎ চাহিদা বাড়লে পরিস্থিতি সামালে কী করা হবে তা জানাতে পারেনি বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড। তবে উৎপাদন বৃদ্ধির চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে বলে জানা গেছে। এ বিষয়ে রবিবার সকাল ১০টায় বিদ্যুৎ ভবনে নিয়মিত সংবাদ সম্মেলনে সার্বিক পরিস্থিতি জানানো হবে।

 

প্রধানমন্ত্রীর বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খণিজ সম্পদ বিষয়ক উপদেষ্টা ড. তৌফিক-ই এলাহী চৌধুরী বলেছেন, এখন পর্যন্ত ৩,৮১৯ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন সম্ভব হয়েছে। রবিবার ভোর নাগাদ পুরো ঢাকা শহরে বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক হবে। রবিবার গোটা দিনে সারা দেশের বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক হবে বলেও জানান তিনি।

 

শনিবার বেলা সাড়ে ১১টা থেকে জাতীয় গ্রিড বসে যাওয়ায় রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ হয়ে যায়। ভারত থেকে ভেড়ামারা বিদ্যুৎ কেন্দ্রে যে ৫০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ আসে সেই লাইনটি বসে যাওয়ার প্রভাবে সারা দেশ অন্ধকারে নিমজ্জিত হয়।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।