২০-দলীয় জোটের ডাকা হরতালের সমর্থনে রাজধানীর ১৫ পয়েন্টে জামায়াতের মিছিল-পিকেটিং

লাগাতার অবরোধের মধ্যে বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০-দলীয় জোটের ডাকা হরতালের সমর্থনে রাজধানীর অন্তত ১৫টি পয়েন্টে মিছিল করেছে জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীরা। এ সময় দলটির নেতাকর্মীরা বেশ কয়েকটি গাড়িতে ভাঙচুরের চেষ্টা চালায়। তবে পুলিশ আসার আগেই তারা নিরাপদ দূরত্বে সরে পড়ে।

 

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা রিয়াজ রহমানকে গুলি করার প্রতিবাদে বিরোধী জোট সারাদেশে এই হরতাল কর্মসূচি পালন করছে। হরতালের সমর্তনে বৃহস্পতিবার সকালে রাজধানীর উত্তরায় মিছিল করে জামায়াতে ইসলামী উত্তরা পশ্চিম থানা। এতে নেতৃত্ব দেন উত্তরা পশ্চিম থানা আমির আবদুল্লাহ রেজা।

 

সকাল সাড়ে আটটার দিকে রাজধানীর ভাটারার নতুনবাজার এবং উত্তরায় মিছিল ও সড়কে আগুন দিয়ে অবরোধের চেষ্টা করে ছাত্রশিবির ঢাকা মহানগরী উত্তর। এখানে নেতৃত্ব দেন ভাটারা থানা সভাপতি আব্দুর রহমান ও গুলশান থানা সভাপতি মিজানুর রহমান। আর একই সময়ে উত্তরার দক্ষিণখান এলাকায় ঢাকা মহানগরী উত্তরের প্রশিক্ষণ সম্পাদক আইয়ুব আলীর নেতৃত্বে হরতালের সমর্থনে মিছিল করে ছাত্রশিবির ঢাকা মহানগরী উত্তর।

 

হরতাল ও লাগাতার অবরোধের সমর্থনে সকাল নয়টার দিকে ডেমরা থানার উদ্যোগে বিক্ষোভ মিছিল করেছে জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীরা। মিছিলটি ডগাইর থেকে শুরু হয়ে কিছুদূর এসে পুলিশের বাধার মুখে পড়ে ছত্রভঙ্গ হয়ে যায়। এখানে নেতৃত্ব দেন থানা আমির হাফিজুর রহমান।

 

এছাড়া হরতালের সমর্থনে যাত্রাবাড়ীতে মিছিল হয়েছে থানা আমির আবু ফতেহের নেতৃত্বে, শ্যামপুর ও কদমতলীর মিছিলে নেতৃত্ব দেন জামায়াত নেতা নেসার উদ্দীন, কদমতলীতে মিছিল করেছে জামায়াত নেতা আনোয়ার হোসেনের নেতৃত্বে, হাজারীবাগে মিছিল করেছে জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীরা। বিক্ষোভ মিছিলটি রায়েরবাজার থেকে শুরু হয়ে নগরীর গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে রায়েরবাজার কমিউনিটি সেন্টারের সামনে সমাবেশ করে।

 

সমাবেশে বক্তব্য রাখেন- থানার ভারপ্রাপ্ত আমির আব্দুল বারী আকন্দ। উপস্থিত ছিলেন- জামায়াত নেতা হারিস উদ্দীন, মামুনুর রশীদ, ছাত্র সোহেল, রবিউল, নাহিদ, সোহাগ, কাওসার প্রমুখ। ছাত্রশিবির ঢাকা মহানগরী পূর্ব শাখা সকাল নয়টায় রাজধানী সবুজবাগ এলাকায় হরতাল সমর্থনে বিক্ষোভ মিছিল করেছে। মিছিলে নেতৃত্ব দেন মহানগরী সভাপতি রেজাউল হক রিয়াজ।

 

মিছিল শেষে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বক্তব্য দেন- ইসলামী ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় সাহিত্য সম্পাদক ইয়াছিন আরাফাত। আরো উপস্থিত ছিলেন- মহানগরী সেক্রেটারি এম শামীম, অর্থসম্পাদক তোজাম্মেল হক, প্রচার সম্পাদক আবদুল কাদের, ছাত্রকল্যাণ সম্পাদক আশরাফ উদ্দিন, স্কুলকার্যক্রম সম্পাদক ফায়জুর রহমান, সবুজবাগ থানা সভাপতি হাফিজুর রহমান প্রমুখ।

 

এছাড়া ছাত্রশিবির চকবাজার অঞ্চল সকাল আটটায় হরতাল পালনে বিক্ষোভ মিছিল করে। মিছিলে নেতৃত্ব দেন মহানগরী প্রচার সম্পাদক আবদুল কাদের। এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন- চকবাজার থানা সভাপতি হেলাল উদ্দিন, ঢাকা আলীয়া মাদ্রাসা সভাপতি রেদওয়ান উল্যাহ, চকবাজার সেক্রেটারি আশরাফুল আলম, লালবাগ সেক্রেটারি জামিল হোসেন প্রমুখ।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।