শুক্রবার, জানুয়ারী 28, 2022
শুক্রবার, জানুয়ারী 28, 2022
শুক্রবার, জানুয়ারী 28, 2022
spot_img
Homeঅর্থনীতিচলতি বছরের বাজারে আসছে ১১০ কোটি পিস এক ও দুই টাকা: বাংলাদেশ...

চলতি বছরের বাজারে আসছে ১১০ কোটি পিস এক ও দুই টাকা: বাংলাদেশ ব্যাংক

চলতি বছরের মধ্যেই বাজারে আসছে ১১০ কোটি পিস ১ ও ২ টাকার মুদ্রা। মঙ্গলবার দৈনিক বণিক বার্তার এক প্রতিবেদনে বলা হয়, এরই  মধ্যে ৯০ কোটি পিস ১ ও ২ টাকার ধাতব মুদ্রা বাংলাদেশ ব্যাংকে জমা হয়েছে। শিগগিরই এগুলো বাজারে আসবে।

 

জুনের মধ্যে নতুন করে আনা হচ্ছে ২০ কোটি পিস ২ টাকার নোট। ১ ও ২ টাকার মুদ্রা ‘অপ্রয়োজনীয় হয়ে পড়েছে’— অর্থমন্ত্রীর এমন ঘোষণার মধ্যেই নতুন করে এ মুদ্রা আনার তথ্য জানিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

 

সূত্র বলছে, অদূর ভবিষ্যতে ১ ও ২ টাকার মুদ্রা বিলুপ্তির পরিকল্পনা সরকারের নেই। এরই অংশ হিসেবে ২০ কোটি পিস ২ টাকার নোট ছাপাতে কাগজের জন্য এলসি খোলা হয়েছে। আগামী মে-জুনের মধ্যেই অর্থ বিভাগের সিনিয়র সচিবের স্বাক্ষরযুক্ত ২ টাকার নোট বাজারে পাওয়া যাবে। এছাড়া জাপান ও স্লোভাকিয়া মিন্টের সরবরাহ করা ৯০ কোটি পিস ১ ও ২ টাকার কয়েনও এরই মধ্যে বাংলাদেশ ব্যাংকে জমা হয়েছে।

 

বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর মো. আবুল কাশেম বলেন, বিদেশ থেকে চলতি অর্থবছরে ৯০ কোটি পিস ধাতব মুদ্রা এসেছে। বাংলাদেশ ব্যাংক ২০ কোটি পিস ২ টাকার নোট ছাপানোর উদ্যোগ নিয়েছে। এটা নিয়ে টাঁকশাল কাজ করছে। জুনের আগেই নতুন এ নোট বাজারে পাওয়া যাবে বলে আশা করা যাচ্ছে।

 

বিশ্লেষকরা বলছেন, ১ ও ২ টাকার মুদ্রা মান হারিয়েছে— এমন ধারণা একেবারেই ভুল। এখনো এগুলো মান হারায়নি। ১ টাকার কয়েন এখনো ১ সেন্টের চেয়ে দামি। ২ টাকার কয়েন ব্রিটিশ ১ পেনির চেয়ে বেশি মূল্যমানের। তাছাড়া বিনিময়ের ক্ষেত্রে এ দুই মুদ্রার এখনো প্রয়োজন রয়েছে। ভবিষ্যতেও থাকবে।

 

তাদের মতে, বাজারে অনেক পণ্য রয়েছে, যার দাম ১ বা ২ টাকা। এসব পণ্য একটি কিনতে গেলে ভোক্তারা সমস্যায় পড়বেন। এছাড়া সরকারি কর্মচারী ও কর্মকর্তাদের বেতন-ভাতা এবং বিল পরিশোধে ১ টাকা ও ২ টাকার মুদ্রার প্রয়োজন হয়। যাত্রীভাড়া পরিশোধেও ১ ও ২ টাকার মুদ্রার প্রয়োজন পড়ে।

 

বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ড. সালেহউদ্দিন আহমেদ এ প্রসঙ্গে বলেন, ১ ও ২ টাকার মুদ্রা মূল্য হারিয়েছে— এ যুক্তি বিস্ময়কর। বাংলাদেশের মুদ্রা এখনো যথেষ্ট শক্তিশালী। এ দেশের মুদ্রার অবস্থা ইন্দোনেশিয়ার রুপিয়ার মতো হয়নি যে, ১ ও ২ টাকা তুলে নিতে হবে।

 

উল্লেখ্য, অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত গত রবিবার ১ ও ২ টাকার মুদ্রা বিলুপ্তির ঘোষণা দেন। তিনি বলেন, ১ টাকা ও ২ টাকার মুদ্রা মান হারিয়েছে। এ কারণে সরকার মুদ্রা দুটি বিলুপ্তির কথা ভাবছে। পাশাপাশি ৫ টাকাকে সরকারি নোটে পরিবর্তন করা হবে। তবে তার পরদিন সোমবারই অবস্থান পরিবর্তন করেন অর্থমন্ত্রী। এখনই এটা তুলে নেয়া হচ্ছে না, ভবিষ্যতে পর্যায়ক্রমে ১ ও ২ টাকার মুদ্রা তুলে নেয়া হবে।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -spot_img

Most Popular

Recent Comments