বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর 2, 2021
বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর 2, 2021
বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর 2, 2021
spot_img
Homeউপজেলানাঙ্গলকোটকে জেলা ঘোষনার দাবিতে আলোচনা সভা

নাঙ্গলকোটকে জেলা ঘোষনার দাবিতে আলোচনা সভা

কুমিল্লার নাঙ্গলকোটকে জেলা ঘোষনার দাবিতে মঙ্গলবার হাছান মেমোরিয়াল ডিগ্রি কলেজ মিলনায়তনে ইয়ুথ জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশন, লেখক ফোরাম ও  নাঙ্গলকোট জেলা বাস্তবায়ন পরিষদের যৌথ উদ্যোগে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
সভায় ইয়ুথ জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের আহ্বায়বাক মো. শাখাওয়াত হোসেন সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন, ঘুরে বেড়াই বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা মো. অহিদ উল্লাহ পাটোয়ারী, লেখক ফোরাম ও ইয়ুথ জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের উদ্যোক্তা মো. আলাউদ্দিন মজুমদার, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. দুলাল মিয়া, মাস্টার মো. সোহরাব হোসেন, সোহেল সুমন, খন্দকার মো. সহিদ, এইচ এম আজিজুল হক, রেজাউল করিম, রহিম, তৌহিদ, আজিম উল্লাহ হানিফ, রাসেল, মোজাম্মেল হোসেন প্রমূখ।
সভায় বক্তারা বলেন, মন্ত্রিসভার বৈঠকে কুমিল্লা বিভাগ ঘোষনার নীতিগত সিদান্ত নেয়ার পর নাঙ্গলকোটকে জেলা বাস্তবায়নের এখনই উপযুক্ত সময়। নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিসহ বিভিন্ন পেশাজীবিদের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় শিগগিরই নাঙ্গলকোটকে জেলা বাস্তবায়ন সম্ভব। স্থানীয় সংবাদপত্র নাঙ্গলকোট এক্সপ্রেস এর সূত্রমতে, ১৯৯০ সাল থেকে স্বাধীনতা সংগ্রামের সূচনাভূমি এই নাঙ্গলকোটকে জেলা ঘোষনার দাবি চলমান হয়ে আসছে।

 

দেশের মানচিত্রে নাঙ্গলকোট একটি গুরুত্বপূর্ণ উপজেলা হিসেবে চিহিৃত। সময়ের তাগিদে নাঙ্গলকোট উপজেলাকে জেলা হিসেবে রুপান্তর করা হলে নতুন সম্ভাবনার দ্বার উম্মোচিত হবে। সৃষ্টি হবে অর্থনৈতিক উন্নয়নের নতুন ক্ষেত্র। কৃষি, শিল্প, বিদুৎ, জ্বালালী, গ্যাস, পরিবহন, যোগাযোগ, আইসিটি ও জলবায়ু পরিবর্তনসহ বিভিন্ন খাতে দেখা দিবে অভূতপূর্ব সাফল্য। সরকারী খাতের পাশাপাশি বিভিন্ন ক্ষেত্রে বেসরকারী প্রতিষ্ঠানগুলোও বিনিয়োগের সুযোগ পাবে। এতে সৃষ্টি হবে নতুন নতুন কর্মসংস্থান।

 

শিক্ষা, স্বাস্থ্য হলো মানব সম্পদ উন্নয়নের ভিত্তি। নাঙ্গলকোট জেলা বাস্তবায়ন হলে এ অঞ্চলে স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা, কারিগরি শিক্ষা, উচ্চ শিক্ষা, নারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও হাসপাতালসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান বৃদ্ধি পাবে। নাঙ্গলকোট জেলা বাস্তবায়ন হলে এ অঞ্চলের অবকাঠামোগত উন্নয়নও ত্বরানিত হবে।

 

সড়ক ও রেলপথের আরও উন্নয়ন ঘটবে। রূপরেখা অনুযায়ী নাঙ্গলকোট ছাড়াও লাকসাম, মনোহরগঞ্জ, চৌদ্দগ্রাম, নোয়াখালীর সেনবাগ ও সোনাইমুড়ী এবং ফেনীর দাগনভূঁইয়া উপজেলার সমন্বয়ে অচিরেই নাঙ্গলকোট জেলা বাস্তবায়ন হবে বলে জনসাধারণের প্রত্যাশা।

 

বক্তারা এজন্য স্থানীয় সাংসদ ও পরিকল্পনা মন্ত্রী আ.হ.ম মোস্তফা কামালের (লোটাস কামাল) সহযোগিতা কামনা করেছেন। এছাড়া সভায় নাঙ্গলকোটকে জেলা ঘোষনার দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -spot_img

Most Popular

Recent Comments