শুক্রবার, অক্টোবর 22, 2021
শুক্রবার, অক্টোবর 22, 2021
শুক্রবার, অক্টোবর 22, 2021
spot_img
Homeরায়পুরলক্ষ্মীপুর জেলা ছাত্রদলের সাবেক নেতা জিসানের লাশ ৭দিন পর উত্তোলন, দাফন

লক্ষ্মীপুর জেলা ছাত্রদলের সাবেক নেতা জিসানের লাশ ৭দিন পর উত্তোলন, দাফন

লক্ষ্মীপুর জেলা ছাত্রদলের সাবেক প্রচার ও পাঠাগার বিষয়ক সম্পাদক  সোলাইমান উদ্দিন জিসানের লাশ ৭দিন পর গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে কুমিল্লার টিক্কারচর এলাকা উত্তোলন করে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়। পরে নিহত জিসানের গ্রামের বাড়ি লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার চন্দ্রগঞ্জের লতিফপুর এলাকায় দুপুর ২টায় জানাযা শেষে নিজ পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়।

 

জানাযায় ইমামমতি করেন স্থানীয় মসজিদের ইমাম মাও.সামছুল হুদা। এ সময় উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় বিএনপি, যুবদল ও ছাত্রদল নেতাকর্মীসহ হাজারো স্থানীয় এলাকাবাসী। জিসানের লাশ দাফনের সময় অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে বিজিবি ও পুলিশ মোতায়েন ছিল।

 
অপরদিকে চন্দ্রগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ হুমায়ুন কবির জানান, সোলাইমান উদ্দিন জিসান পুলিশের তালিকাভূক্ত র্শীষ সন্ত্রাসী। তার বিরুদ্ধে লক্ষ্মীপুর সদর,চন্দ্রগঞ্জ,নোয়াখালীর সুধারাম, বেগমগঞ্জ ও চাটখিল থানাসহ বিভিন্ন স্থানে হত্যা, চাঁদাবাজি, অপহরনসহ ৪৪টি মামলা রয়েছে। ওইদিন রাতে কুমিল্লার দাউদকান্দিতে র‌্যাবের সাথে বন্দুকযুদ্ধে জিসান নিহত হয়েছে।

 
নিহত জিসানের পরিবার সূত্রে জানা যায়, গত ২৩ জানুয়ারী ভোররাতে কুমিল্লার দাউদকান্দিতে র‌্যাব গুলি করে সোলাইমান উদ্দিন জিসানকে হত্যা করে। পরে কথিত বন্দুকযুদ্ধে সে মারা যায়। এরপর  কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ময়নাতদন্ত শেষে পুলিশ বেওয়ারিশ লাশ হিসেবে আঞ্জুমান মফিদুল ইসলামের মাধ্যমে কুমিল্লার টিক্কারচর এলাকায় দাফন করে।

 

জিসানের মা ফাতেমা বেগম অভিযোগ করে বলেন, ওইদিন জিসানের লাশের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজে গেলে পুলিশ তাকে লাশ দেয়নি। পরে বাধ্য হয়ে  গত রোববার কুমিল্লার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলী আদালতে জিসানের মা ফাতেমা বেগম বাদী হয়ে ছেলের লাশ পাওয়ার জন্য একটি আবেদন করেন।

 

নিহত জিসান বেওয়ারিশ নয়, জিসানের মার আবেদনের প্রেক্ষিতে আদালতের নির্দেশে বৃহস্পতিবার সকাল ৯টার দিকে কুমিল্লার জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের ম্যজিস্ট্রেট শামীম আহম্মেদের উপস্থিতিতে জিসানের লাশ উত্তোলন করা হয়। লাশ উত্তোলনে সহায়তা করেন আঞ্জুমান মফিদুল ইসলাম কুমিল্লা জেলা শাখা।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -spot_img

Most Popular

Recent Comments