খালেদার কার্যালয়ে ইটের টুকরা নিক্ষেপ করেছে এক যুবক

বিএনপি চেয়ারপারসনের গুলশান কার্যালয় লক্ষ্য করে একটি ইটের টুকরা নিক্ষেপ করেছে পরান নামের এক যুবক। দায়িত্বরত গোয়েন্দা পুলিশ তাৎক্ষণিকভাবে ছেলেটিকে আটক করে নিয়ে যায়। মঙ্গলবার বেলা দেড়টার দিকে ৮৬ নম্বর রোডের উত্তর দিক থেকে দুই হাতে দুটি ইটের টুকরা হাতে নিয়ে আসে ওই যুবক।

 

প্রথম টুকরাটি ছোড়ার দ্বিতীয়টি ছোড়ার আগেই ডিবি পুলিশ তাকে আটক করে। ইটের টুকরা ছোড়ার সময় বলতে শোনা যায়, ‘খালেদা জিয়া কই, আমার ভাইকে পুড়িয়ে মেরেছে।’ পুলিশ আটক করার পর তিনি নিজের নাম পরাণ সরকার বলে জানান।

 

তিনি আরো জানান, তার বাড়ি সিরাজগঞ্জ জেলার কাজীপুরে। তিনি ওষুধের ব্যবসা করেন। তার পড়নে একটি জ্যাকেট ছিল।

 

বিএনপি চেয়ারপারসনের মিডিয়া উইং কর্মকর্তা শামসুদ্দিন দিদার জানান, দেড়টার দিকে কার্যালয়ের ভেতরে একটি ইটের টুকরা এসে পড়ে। এসে কেউ হতাহত হয়নি। এর আগে বেলা ১১টার দিকে গুলশান দুই নম্বর গোলচত্বরে হরতাল অবরোধ প্রত্যাহারের দাবিতে বিক্ষোভ করে সৈনিক লীগের নেতাকর্মীরা। ওখান থেকে তারা খালেদা জিয়ার কার্যালয়ের অভিমুখে যেতে চাইলে পুলিশ আটকে দেয়।

 

এরপরে গুলশান-২ এর গোল চত্বরে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করে চলে যায়। সমাবেশে বক্তব্য রাখেন- বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এমএ কাশেম।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।