রবিবার, অক্টোবর 24, 2021
রবিবার, অক্টোবর 24, 2021
রবিবার, অক্টোবর 24, 2021
spot_img
Homeরায়পুররায়পুরে কৃষকদের বাড়ি-ঘরে যুবলীগের হামলা, ভাংচুর, লুটপাট, আহত-১৫

রায়পুরে কৃষকদের বাড়ি-ঘরে যুবলীগের হামলা, ভাংচুর, লুটপাট, আহত-১৫

লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলার চরমোহনা ইউনিয়নের চর বিকন্সফিল্ড গ্রামে ৫ কৃষকের ৬টি বসত ঘরে হামলা, ভাংচুর ও লুটপাট চালিয়েছে যুবলীগের নেতাকর্মীরা। জায়গা-জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় (২৪ ফেব্রুয়ারি) তারা এ ঘটনা ঘটায়। পুনরায় হামলার শিকার হওয়ার আশঙ্কায় কৃষক পরিবারগুলোতে চরম আতঙ্ক দেখা দিয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

 
হামলাকারীরা কৃষকদের বসত ঘর ভাংচুর, লুটপাট ও অগ্নিসংযোগ করে। কুপিয়ে ও পিটিয়ে জখম এবং আহত করেছে নারী, শিশু ও বৃদ্ধসহ অন্তত: ১৫ জন। এদের মধ্যে গুরুতর আহত ৪ জনকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

 
প্রত্যক্ষদর্শী, ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলো ও এলাকাবাসী জানিয়েছে, দীর্ঘদিন ধরে ২৫ শতাংশ জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছে ওই গ্রামের আলী আজ্জন ক্বারী বাড়ির কৃষক মো. ছোলেমান’র সঙ্গে অলি উল্যা মিজির। মঙ্গলবার দুপুরে উভয় পরিবারে কথা কাটাকাটি হয়।

 

এর জের ধরে বিকালে অজি উল্যার দু’পুত্র হারুনুর রশিদ মাষ্টার (৪৫), হুমায়ুন কবির (৪০), তাদের আত্মীয় সেনা সদস্য আনোয়ার (২৮) ও মিতালী বাজার এলাকার যুবলীগ নেতা তাজুল ইসলাম তাজুর (৩৮) নেতৃত্বে অর্ধ শতাধিক লোক দেশীয় অস্ত্র সস্ত্রে সজ্জিত হয়ে ছোলেমানের বাড়িতে হামলা চালায়। ওই সময় হামলাকারীরা কৃষক ছোলেমান, আব্বাস, হালিম, মোস্তফা ও জাফরের বসত ঘর দা-ছেনি দিয়ে কুপিয়ে ও তছনছ শেষে লুটপাট করে একটি ঘরে আগুন লাগিয়ে দেয়।

 
হামলায় আহত হয় কৃষক পরিবারের ছোলেমান (৫০), জয়নাল (৭৫), মনসুর (৬৫), আমীন (৩৫), স্বপ্না (৪০), সিরাজ (১৫), হাসিম (৩০), আব্বাছ (৩০), রিনা (২০), রিয়াদ (২৭), আলী (৩০) ও ফেন্সি (২৮) সহ অন্তত: ১৫ জন। এদের মধ্যে গুরুতর আহত জয়নাল, মনসুর, আমীন ও স্বপ্নাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

 
উল্লেখ্য, ৯নং দক্ষিণ চর আবাবিল ইউনিয়ন যুবলীগের আহ্বায়ক তাজুল ইসলাম তাজুর বিরুদ্ধে শতাধিক ক্যাডার দিয়ে দীর্ঘদিন থেকেই এলাকায় পেশাদার জুয়া চালানো, জমি দখল, নির্যাতন, সন্ত্রাসসহ নানান অনৈতিক কাজে জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে। তাজুর ব্যবহৃত মোবাইল বন্ধ থাকায় তাঁর বক্তব্য জানা যায়নি।

 
হামলা প্রসঙ্গে মো. হারুনুর রশিদ মাষ্টার বলেন, জমি সংক্রান্ত বিরোধে তদন্তের সময় আমাদের আত্মীয় সেনা সদস্য আনোয়ার কথা বলায় তাকে লাঞ্ছিত করে ছোলেমানের লোকজন। এর জের ধরে আনোয়ারের পক্ষের লোকজন উত্তেজিত হয়ে এ হামলা করে থাকতে পারে। যুবলীগ নেতা তাজু আমাদের আত্মীয় হয়।

 
রায়পুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মনজুরুল হক আকন্দ বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ পাঠিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্তদের মামলা করার পরামর্শ দেয়া হয়েছে। তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -spot_img

Most Popular

Recent Comments