রায় ত্রুটিপূর্ণ, ফাঁসি স্থগিত করুন: এইচআরডব্লিউ

যুদ্ধাপরাধের বিচারের রায় ত্রুটিপূর্ণ মন্তব্য করে জামায়াতের ইসলামীর সহকারি সেক্রেটারি জেনারেল মুহাম্মদ কামারুজ্জামানের ফাঁসি স্থগিত করার আহ্বান জানিয়েছে খ্যাতনামা মানবাধিকার সংগঠন হিউম্যান রাইটস ওয়াচ।

 

মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে নিউইর্কভিত্তিক সংগঠনটি বলছে, রিভিউয়ে কামারুজ্জামানের আবেদনের ‘মেরিট’ না শুনেই আপিল বিভাগ তার রিভিউ খারিজ করে দিয়ে মৃত্যুদণ্ড বহাল রেখেছে। ‘মৃত্যুদণ্ড একটি অপরিবর্তনীয় এবং নিষ্ঠুর সাজা। এটা আরো ভয়াবহ হয় যখন এ ধরনের সাজা পুনরাই পর্যালোচনা করে দেখতে বিচার বিভাগ ব্যর্থ হয়।

 

বাংলাদেশে যুদ্ধাপরাধের বিচারে ন্যায়বিচার লঙ্ঘনের ক্রমাগত এবং বিশ্বাসযোগ্য অভিযোগ রয়েছে যার নিরপেক্ষ বিচার বিভাগীয় পর্যালোচনা দরকার,’ বলেন এইচআরডব্লিউর এশিয়া ডিরেক্টর ব্র্যাড অ্যাডামস। এইচআরডব্লিউর এ বিবৃতি এমন সময় এলো যখন কামারুজ্জামানের ফাঁসির সব প্রস্তুতি দৃশ্যত শেষ হয়েছে।

 

রিভিউর আদেশে বিচারপতিরা স্বাক্ষর না করায় গতরাতে তার সর্বোচ্চ শাস্তি কার্যকর করা যায়নি। আজ রায়ে বিচারপতিরা স্বাক্ষর করলে যে কোনো মুহূর্তে এই জামায়াত নেতার মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হতে পারে।

 

বিবৃতিতে বলা হয়, কামারুজ্জামানের বিচার চলাকালে আদালত সাক্ষী ও ডকুমেন্টটসহ আসামিপক্ষের উপস্থাপিত প্রমাণাদিকে স্বেচ্ছাচারীভাবে সীমিত করে দিয়েছে। রাষ্ট্রপক্ষের সাক্ষীদের জেরাকালে তারা তাদের আগের বক্তব্যের সাথে অসংগতিপূর্ণ যেসব বক্তব্য দিয়েছেন তা চ্যালেঞ্জ করার সুযোগ দিতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে আদালত। দুজন বিচারক এর আগে পক্ষপাত করলে তাদের প্রত্যাহার করে নেয়ার আসামিপক্ষের আবেদনও নাকচ করে দেয়া হয়েছে।

 

অ্যাডামস বলেন, ১৯৭১ সালে যে ভয়াবহ অপরাধ সংঘটিত হয়েছিল তার বিচার ও জবাবদিহিতাকে দীর্ঘদিন ধরেই সমর্থন দিয়ে আসছে হিউম্যান রাইটস ওয়াচ। কিন্তু তা হতে হবে আন্তর্জাতিক স্বচ্ছ বিচারের মান বজায় রেখে যাতে ভিকটিমরা যথাযথ বিচার পায়।

 

‘বিচারের ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ মান বজায় রাখার প্রতি অবিচল থাকা দরকার, বিশেষ করে যখন কারো জীবন বিপন্ন হওয়ার আশঙ্কা থাকে। কামারুজ্জামানের বিচারে এসব মান রক্ষা করা হয়েছে তা বলা যাবে না,’ যোগ করেন অ্যাডামস।

 

বিবৃতিতে মৃত্যুদণ্ড স্থগিত করে তা বাতিল করার জন্য বাংলাদেশ সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে হিউম্যান রাইটস ওয়াচ। সংস্থাটি বলছে, অপরাধের ধরণ যত ভয়াবহই হোক না কেন তার সাজা মৃত্যুদণ্ড হওয়ার কোনো যৌক্তিকতা নেই।

 

মৃত্যুদণ্ডকে ‘বর্বর’ রীতি মন্তব্য করে অ্যাডামস বলেন, বাংলাদেশের উচিত মৃত্যুদণ্ড রহিতকারী ক্রমবর্ধমান দেশের তালিকায় যোগ দেয়া।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।