দুর্নীতি মামলায় খালেদার আবেদন খারিজ

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বাদীর জবানবন্দি বাতিল করে নতুন করে সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার করা আবেদন খারিজ করে দিয়েছে হাইকোর্ট। সোমবার বিচারপতি মঈনুল ইসলাম চৌধুরী ও বিচারপতি জেবিএম হাসানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এই খারিজ আদেশ দেয়।

 

এই মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের এক নম্বর সাক্ষী ও মামলার বাদী হারুন-অর-রশিদের সাক্ষ্য বাতিল চেয়ে খালেদা জিয়ার আবেদন করেছিলেন। আদালত গত ২৫ জুন আবেদনের ওপর উভয়পক্ষের শুনানি গ্রহণ করে আজ রায়ের দিন ধার্য করেছিল। আদালতে খালেদা জিয়ার পক্ষে শুনানি করেছিলেন এ জে মোহাম্মদ আলী। দুদকের পক্ষে ছিলেন খুরশীদ আলম খান।

 

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট থেকে ২ কোটি ১০ লাখ ৭১,৬৭১ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে ২০০৮ সালের ৩ জুলাই রমনা থানায় এ মামলা দায়ের করে দুদক। সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া ও তার ছেলে তারেক রহমানসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে ২০১০ সালের ৫ আগস্ট এ মামলার অভিযোগপত্র দেন তদন্ত কর্মকর্তা।

 

গত বছর ১৯ মার্চ ঢাকার বিশেষ জজ আদালতে অভিযোগ গঠনের মধ্যদিয়ে তাদের বিচার শুরু হয়। সর্বশেষ গত ১৮ জুন খালেদার উপস্থিতিতে এই মামলায় শুনানির পর বকশিবাজার আলিয়া মাদ্রাসা মাঠের অস্থায়ী বিশেষ জজ আদালতের বিচারক আবু আহমেদ জমাদার ২৩ জুলাই মামলার পরবর্তী দিন রাখেন।

 

এ মামলায় অভিযোগ গঠনের পর তার বৈধতা ও অভিযোগ গঠনকারী বিচারকের নিয়োগের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করেও উচ্চ আদালতে গিয়েছিলেন খালেদা জিয়া। তবে তার আবেদনগুলো আপিলেও খারিজ হয়ে যায়।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।