শনিবার, অক্টোবর 16, 2021
শনিবার, অক্টোবর 16, 2021
শনিবার, অক্টোবর 16, 2021
spot_img
Homeকুমিল্লালাকসামে শ্রেনী কক্ষের ফ্লোর ধ্বসে আহত শিক্ষার্থীদের চিকিৎসার খোজ নিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান

লাকসামে শ্রেনী কক্ষের ফ্লোর ধ্বসে আহত শিক্ষার্থীদের চিকিৎসার খোজ নিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান

লাকসামে অশ্বতলা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শ্রেনী কক্ষের ফ্লোর ধ্বসে আহত উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তিকৃত পঞ্চম শ্রেনীর শিক্ষার্থীদের চিকিৎসার খোজ-খবর নিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান এডভোকেট ইউনুছ ভুঁইয়া।গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে চিকিৎসারত শিক্ষার্থীদের পরিবারকে সন্তনা দেন এবং নিজ তহবিল থেকে নগদ অর্থ প্রদান করেন।

 

তিনি ডিউটিরত নার্সদের নিকট তাদের চিকিৎসার খোজ-খবর নেন এবং সরকারী হাসপাতাল থেকে চিকিৎসারত শিক্ষার্থীদের সম্ভব সকল ঔষধের ব্যবস্থা করার নির্দেশ প্রদান করেন।এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি সাংবাদিক মুজিবুর রহমান দুলাল।

 

জানাযায়,গত সোমবার সকালে উপজেলার কান্দিরপাড় ইউপির অশ্বতলা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেনীর শিক্ষার্থীদের গণিত ক্লাস চলাকালীন হঠাৎ বিকট শব্দে কক্ষের ফ্লোরটি পুকুরে ধ্বসে নিচের দিকে তলিয়ে যায়।

 

এ সময় পাঠরত শিক্ষার্থীরা পুকুরের পানিতে পড়ে হাবু ডুবু খেতে থাকে। আতংকিত অন্যান্য শ্রেনীর শিক্ষার্থীদের শোর চিৎকারে আশে পাশের লোকজন দৌড়ে এসে তাদের উদ্ধার করে। গুরুতর আহত মৌসুমী, শাকিব, পিংকি, শান্তা, জান্নাতুল মাওয়া, জেসমিন, ফারজানা, ইলিয়াছ, শাওন, সাইফুল, মুক্তা আক্তার, রুমা, শোভা, ঝুমুর, তাসলিমা, তাহমিনা, ফাতেমা আক্তারসহ ২০জন শিশু শিক্ষার্থীকে লাকসাম সরকারী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।ঘটনার তদন্তে উপজেলা প্রশাসন কৃষি কর্মকতা সিরাজ উদ্দিন হোসেন,শিক্ষা কর্মকর্তা দেলোয়ার হোসেন ও প্রকৌশল কর্মকর্তা দেলোয়ার হোসেন কে সদস্য করে ৩সদস্য তদন্ত কমিটি ঘটন করেন।

 

সংবাদ পেয়ে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার নুরুল ইসলাম,উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সফিউল আলম, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মহব্বত আলী, উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা দেলোয়ার হোসেন, লাকসাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) নাসির উদ্দিন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে আহত শিক্ষার্থীদের খোজ-খবর নিয়েছেন।

 

বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি সিরাজুল ইসলাম ও স্থানীয় সুত্রে জানাযায়, বিগত ২০০১-২০০২ সালে ওই ভবনটি নির্মান করা হয়েছিল।ওই বিদ্যালয় ভবনের পশ্চিমে পুকুরে গত বছরে ড্রেজার দিয়ে বালি উত্তোলনের ফলে ভবনের নিচের মাটি সরে যাওয়ায় ফ্লোর ধ্বসের কারনে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

 

এদিকে ওইদিন সকালে শিক্ষার্থীদের আহত হওয়ার সংবাদ পেয়ে লাকসাম উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ শফিউল আলম,উপজেলা পরিষদের ভাইস-চেয়ারম্যান মহব্বত আলী,উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা দেলোয়ার হোসেন উপস্থিত থেকে শিক্ষার্থীদের সকল চিকিৎসার বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

 

গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে লাকসাম উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এডভোকেট ইউনুছ ভুঁইয়া আহত শিক্ষার্থীদের চিকিৎসার খোজ নিতে এলে জরুরী বিভাগে ডিউটিরত ডাক্তার কে উপস্থিত না পেয়ে হাসপাতালের প্রধান ডা.মুজিবুল হককে বিষয়টি অবহিত করেন এবং অনুপস্থিত চিকিৎসকের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা প্রদানের নির্দেশ দেন।

 

এ বিষয়ে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এডভোকেট ইউনুছ ভুঁইয়া ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -spot_img

Most Popular

Recent Comments