রবিবার, অক্টোবর 24, 2021
রবিবার, অক্টোবর 24, 2021
রবিবার, অক্টোবর 24, 2021
spot_img
Homeআন্তর্জাতিকআন্তর্জাতিক বাজারে পানির চেয়ে সস্তায় মিলছে জ্বালানি তেল

আন্তর্জাতিক বাজারে পানির চেয়ে সস্তায় মিলছে জ্বালানি তেল

বিস্ময়কর হলেও সত্য যে বর্তমানে বাংলাদেশে যে দামে পানি কিনতে হচ্ছে, আন্তর্জাতিক বাজারে তার চেয়ে কম দামে  বিক্রি হচ্ছে অপরিশোধিত জ্বালানি তেল।

 

বর্তমানে আন্তর্জাতিক বাজারে প্রতি ব্যারেল (এক ব্যারেল=১৫৯ লিটার) অপরিশোধিত জ্বালানি তেল বিক্রি হচ্ছে ৩০ ডলারের কমে। এ হিসাবে বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রতি লিটারের দাম পড়ে প্রায় ১৫ টাকা।

 

অথচ দেশে প্রতি লিটার বোতলজাত পানি বিক্রি হচ্ছে প্রায় ২০ টাকায়। অর্থাৎ আন্তর্জাতিক বাজারে পানির চেয়েও সস্তায় মিলছে অপরিশোধিত জ্বালানি তেল। আন্তর্জাতিক বাজারে ১২ বছরের মধ্যে সর্বনিম্ন দামে লেনদেন হচ্ছে জ্বালানি তেল।

 

বিশ্ববাজারে দাম পড়ে যাওয়ার পর দেশে জ্বালানি তেলের দাম কমানোর জোর দাবি উঠছে। ব্যবসায়ী নেতারা এ দাবিতে সোচ্চার হয়ে উঠেছেন। অর্থনীতিবিদরাও দাম কমানোর সুপারিশ করছে।

 

২০১৩ সালে আন্তর্জাতিক বাজারে জ্বালানি তেলের দাম ব্যারেলপ্রতি ৯৭ ডলার হলে সে সময় দেশে এর দাম বাড়ানো হয়। এখন তা ৩০ ডলারে নেমে এলেও দেশে দাম কমানোর উদ্যোগ নেই।

 

আন্তর্জাতিক বাজারে বর্তমানে অপরিশোধিত জ্বালানি তেল ব্যারেলপ্রতি ৩০ ডলারের কিছু বেশি দামে বিক্রি হলেও গত সপ্তাহে তা ২৭ ডলারে নেমে আসে। আন্তর্জাতিক পূর্বাভাস অনুযায়ী, চলতি বছরের পুরো সময়জুড়ে ব্যারেলপ্রতি জ্বালানি তেল ৩০ থেকে ৪০ ডলারে লেনদেন হবে।

 

জ্বালানি তেলের দাম কমার চিত্র

গত সোমবার বিশ্বব্যাংক তাদের কমোডিটি আউটলুকে চলতি বছর প্রতি ব্যারেল অপরিশোধিত জ্বালানি তেল ৩৭ ডলারে বিক্রি হওয়ার পূর্বাভাস দিয়েছে। একই দামে পণ্যটি লেনদেনের পূর্বাভাস দিয়েছে যুক্তরাজ্যভিত্তিক বিনিয়োগ ব্যাংক বার্কলেস এবং ইতালিভিত্তিক বহুজাতিক ব্যাংক ও আর্থিক সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান ইউনিক্রেডিট। আর যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক বহুজাতিক বিনিয়োগ ব্যাংক গোল্ডম্যান স্যাকস বলছে, ২০১৬ সালে বিশ্ববাজারে অপরিশোধিত জ্বালানি তেল বিক্রি হতে পারে ব্যারেলপ্রতি ৪০ ডলারে।

 

বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম করপোরেশন (বিপিসি) সূত্র জানায়, আন্তর্জাতিক বাজার থেকে বছরে ১২ লাখ টন অপরিশোধিত জ্বালানি তেল আমদানি করে সংস্থাটি। বাকি ৩৮ লাখ টন আমদানি করে পরিশোধিত হিসেবে। সেখানে পরিশোধিত তেলের দাম অপরিশোধিত তেলের চেয়ে অনেক বেশি হয়। ব্যারেলপ্রতি কখনো কখনো ২০ ডলারের পার্থক্য থাকে। অপরিশোধিত জ্বালানি তেলের দাম ব্যারেলপ্রতি ৩০ ডলার হলেও পরিশোধিত জ্বালানি তেল ৪৫-৫০ ডলার।

 

বিপিসি সূত্রে জানা গেছে, বাজারে এখন প্রতি লিটার ডিজেল বিক্রি হচ্ছে ৬৮ টাকা, কেরোসিন ৬৮, অকটেন ৯৯ ও পেট্রল ৯৬ টাকায়।

 

বিপিসির চেয়ারম্যান এ এম বদরুদ্দোজা জানিয়েছেন, বর্তমানে প্রতি লিটার অকটেনে ৪০ টাকা, পেট্রলে ৩৫ টাকা, ডিজেল ও কেরোসিনে ২০ টাকা ও ফার্নেস তেলে ১৫ টাকা মুনাফা হচ্ছে। অবশ্য বেসরকারি হিসাবে মুনাফার পরিমাণ আরো বেশি।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -spot_img

Most Popular

Recent Comments