রবিবার, ডিসেম্বর 5, 2021
রবিবার, ডিসেম্বর 5, 2021
রবিবার, ডিসেম্বর 5, 2021
spot_img
Homeকুমিল্লাএবার কুমিল্লার মনোহরগঞ্জে স্কুলছাত্রের বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার(বিডিও)

এবার কুমিল্লার মনোহরগঞ্জে স্কুলছাত্রের বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার(বিডিও)

কুমিল্লা ও লাকসামের পর এবার মনোহরগঞ্জে এক স্কুল ছাত্রের বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।  মঙ্গলবার সকালে মনোহরগঞ্জ থানা পুলিশ মনোহরগঞ্জ বাজারের পূর্বপ্রান্তে ‘রাজের গড়’ নামক স্থানে একটি পরিত্যক্ত দোকানের পাশ থেকে তার লাশ উদ্ধার করে।

 

ওই ঘটনায় কুমিল্লা জেলা প্রশাসক মোঃ হাসানুজ্জামান কল্লোল, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুল্লাহ আল মামুনসহ র‌্যাব ও পুলিশের একটি বিশেষ টিম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। জেলা প্রশাসক নিহতের পরিবারকে শান্তনা দিয়ে নগদ ১০ হাজার টাকা তুলে দেন। এ ঘটনায় অজ্ঞাতনামাদের আসামী করে নিহত শিশুটির বাবা খোকন মিয়া বাদী হয়ে মনোহরগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।
পুলিশ জানায়, উপজেলার দিশাবন্ধ পশ্চিমপাড়ার হোটেল শ্রমিক খোকন মিয়ার ছেলে দিশাবন্দ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৩য় শ্রেণির ছাত্র রিয়াদ হোসেন (৯) সোমবার সন্ধ্যার দিকে মনোহরগঞ্জ বাজারে পারিবারিক কেনাকাটার জন্য আসে। রাত পর্যন্ত শিশুটি বাড়িতে না ফেরায় তাকে খোঁজাখুঁজি করেও কোথাও পাওয়া যায়নি।

মঙ্গলবার সকালে স্থানীয় লোকজন সন্দেহবশত বস্তা খুলে লাশ দেখে থানায় খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। পুলিশ জানায়, মনোহরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বিপুল চন্দ্র ভট্ট ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, নিহতের লাশ উদ্ধার কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। তিনি বলেন, নিহত শিশুটির শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ধারনা করা হচ্ছে শিশুটিকে অজ্ঞাতনামা দূবৃর্ত্তরা পিটিয়ে হত্যার পর বস্তাবন্দি করে বাজারের ওই স্থানে ফেলে রেখে যায়। পুলিশ ঘটনার মূল রহস্য উদঘাটন ও আসামীদের গ্রেপ্তারের জন্য চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।
নিহত স্কুলছাত্রের বাবা খোকন মিয়া জানান, মনোহরগঞ্জ বাজারের পাশে তার বাড়ি। সোমবার রাত ১১টায় তার ছেলে রিয়াদকে বাজারে ঘোরাফেরা করতে দেখেন। এরপর সে আর রাতে বাড়ি না ফেরায় আমরা বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজি করি। পরদিন সকালে বাজারের লোকজনের কাছ থেকে একটি বস্তাবন্দি লাশের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে রিয়াদ হোসেনের লাশ দেখতে পাই। তিনি বলেন, কে বা কারা, কি কারণে আমার ছেলেকে নির্মমভাবে হত্যা করে লাশ বস্তাবন্দি করে রেখেছে। আমি আমার ছেলে হত্যার বিচার ও হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করছি।
এদিকে, গতকাল ঘটনাস্থল পরিদর্শনকালে জেলা প্রশাসক হাসানুজ্জামান কল্লোল বলেন, দুস্কৃতিকারীরা যে ভাবে শিশুটিকে হত্যা করেছে তা অত্যন্ত মর্মান্তিক ও দুঃখজনক। হত্যাকারীদের চিহ্নিত করে পুলিশ ও আইনশৃংখলা বাহিনীকে দ্রুত গ্রেফতারের নির্দেশ দেন।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -spot_img

Most Popular

Recent Comments