শনিবার, অক্টোবর 16, 2021
শনিবার, অক্টোবর 16, 2021
শনিবার, অক্টোবর 16, 2021
spot_img
Homeরায়পুররায়পুরে যুবলীগ নেতার স্কুলে তালা বিচারের দাবিতে বিক্ষোভ-উত্তেজনা

রায়পুরে যুবলীগ নেতার স্কুলে তালা বিচারের দাবিতে বিক্ষোভ-উত্তেজনা

লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে বার্ষিক ক্রীড়ার পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে ‘ভাষা আন্দোলন বিফলে যায়নি’ এ বিতর্ক প্রতিযোগীতায় বিপক্ষ দলকে বিজয়ী ঘোষণা করা নিয়ে স্কুলে তালা দিয়েছে বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী ও আ.লীগ নেতাকর্মীরা। তারা ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে বিদ্যালয়টির প্রতিষ্ঠাতা যুবলীগ নেতা, কয়েকজন শিক্ষক ও ৩ বিচারকের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে। মঙ্গলবার (১৫ মার্চ) দুপুরে উত্তর চরবংশী ইউনিয়নের খাসেরহাট বাজারের চরবংশী মডেল স্কুলে এ ঘটনা ঘটে।

 

এলাকাবাসী ও অভিভাবকরা জানান, সোমবার রাতে ওই স্কুলের বার্ষিক ক্রীড়ানুষ্ঠানের পুরস্কার বিতরণ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। ওই সময় ৬ষ্ঠ, ৭ম ও অস্টম শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে ‘ভাষা আন্দোলন বিফলে যায়নি’ বিষয়ে একটি বিতর্ক প্রতিযোগিতা হয়।

 

এতে বিপক্ষ দল পিলখানা ট্রাজেডি, ভোটারবিহীন নির্বাচন, টাকার বিনিময়ে চেয়ারম্যান প্রার্থী মনোনয়ন দেয়াসহ বিভিন্ন বিষয় তুলে ধরে ভাষা আন্দোলন বিফলে গেছে বলে যুক্তি দেখায়। এ প্রতিযোগিতা শেষে ৩ বিচারক হায়দরগঞ্জ মডেল কলেজের সাবেক ভাইস প্রিন্সিপাল মো. মোস্তফা কামাল, রায়পুর রুস্তম আলী ডিগ্রি কলেজের প্রভাষক মো. দেলোয়ার হোসেন ও অগ্রণী ব্যাংকের কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন বিতর্কের বিপক্ষ দলকে বিজয়ী ঘোষণা করেন।

 

এ সময় অনুষ্ঠানস্থলে উত্তেজিত হয়ে এর প্রতিবাদ জানান অনুষ্ঠানের অতিথি উপজেলা চেয়ারম্যান মাষ্টার আলতাফ হোসেন হাওলাদার বিএসসি, সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. শামীম হোসেনসহ স্থানীয় গণ্যমান্যরা। তারা বিতর্কের বিচারক ও প্রতিষ্ঠানের সংশ্লিষ্টদের ভৎসনা (তিরস্কার) করেন।

 

এ ঘটনায় এলাকায় তোলপাড় শুরু হলে মঙ্গলবার দুপুরে উত্তেজিত হয়ে ওঠে এলাকাবাসী, অভিভাবক ও স্থানীয় আ.লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। তারা স্কুলে গিয়ে তালা ঝুলিয়ে দিয়ে খাসেরহাট বাজারে বিক্ষোভ মিছিল করে জড়িতদেরকে রাষ্ট্রদ্রোহী বলে আখ্যা দিয়ে বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. হামিদ, প্রধান শিক্ষক সৈয়দ আহম্মদ মাষ্টারসহ ওই ৩ বিচারকের শাস্তির দাবি জানায়। কয়েক স্থানে হামিদের ফাঁসি ও স্কুল বন্ধের দাবি জানিয়ে দেওয়াল লিখনও দেখা গেছে।

 

এ ঘটনায় বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠাতা যুবলীগ নেতা মো. হামিদ বলেন, বিতর্ক প্রতিযোগিতাটি যথাযথ না হওয়ায় আমরা বার বার প্রকাশ্য ক্ষমা চেয়েছি। তারপরও বিক্ষোভ মিছিল ও স্কুলে তালা দেওয়া হয়েছে।

 

রায়পুর উপজেলা চেয়ারম্যান মাষ্টার মো. আলতাফ হোসেন হাওলাদার বিএসসি বলেন, তাৎক্ষণিক আমরা ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়েছি। এ ধরণের বিতর্ক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কাম্য নয়। পরিস্থিতি শান্ত রাখতে প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

 

উল্লেখ্য, ক্ষমতার প্রভাবে যুবলীগ নেতা হামিদ সরকারি এ ভূমিটি জোরপূর্বক দখল করে সরকারি গাছ কেটে নিয়ে সেখানে ব্যক্তি মালিকানাধীন এ স্কুলটি নির্মাণ করেন।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -spot_img

Most Popular

Recent Comments