মঙ্গলবার, অক্টোবর 26, 2021
মঙ্গলবার, অক্টোবর 26, 2021
মঙ্গলবার, অক্টোবর 26, 2021
spot_img
Homeকুমিল্লাপরিকল্পনামন্ত্রীর শিক্ষক আবদুল বারীর দাফন সম্পন্ন

পরিকল্পনামন্ত্রীর শিক্ষক আবদুল বারীর দাফন সম্পন্ন

কুমিল্লা জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক ও সাবেক এমপি মরহুম অধ্যক্ষ আবুল কালাম মজুমদার এবং কুমিল্লা জেলা আওয়ামীলীগের বর্তমান সভাপতি পরিকল্পনামন্ত্রী আ.হ.ম মুস্তফা কামাল এমপির প্রিয় শিক্ষক বাগমারা উচ্চ বিদ্যাালয়ের প্রাক্তন প্রধান শিক্ষক হাজী আবদুল বারী ভুঁইয়া আর নেই। বুধবার রাত ২.৩০টায় লাকসামের একটি বেসরকারি হাসপাতালে তিনি শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেছেন। ইন্নালিল্লাহে ওয়াইন্না ইলাইহে রাজিউন। বৃহস্পতিবার নিজবাড়ি লাকসামের শিকারীপাড়া ২য় জানাযা শেষে তাকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে।

 

বৃহস্পতিবার দুপুর ২টায় বাগমারা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে মরহুমের ১ম জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। এর আগে তাঁর মরদেহে এলাকার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও রাজনৈতিক ব্যক্তিদের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধাঞ্জলি প্রদান করা হয়। জানাজার নামাজে ইমামতি করেন মৌকরা দরবার শরীফের পীর মাওলানা নেছার উদ্দীন ওয়ালিউল্লাহী। জানাযায় উপস্থিত ছিলেন, জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য ও পরিকল্পনামন্ত্রীর বড় ভাই আলহাজ্ব আবদুল হামিদ, বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্র কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডের উপ-পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক হাবিবুর রহমান (কলেজ শাখা), শহিদুল ইসলাম (স্কুল শাখা), লালমাই ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ আবদুল মমিন মজুমদার, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব আবদুল মালেক, সাধারন সম্পাদক ও বাগমারা দক্ষিণ ইউপি চেয়ারম্যান বীরমুক্তিযোদ্ধা আবু তাহের মজুমদার, যুগ্ম সাধারন সম্পাদক ও বাগমারা উত্তর ইউপি চেয়ারম্যান মো: আবুল কাশেম, বাগমারা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কুদরত উল্লাহ বিএসসি, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিলের ডেপুটি কমান্ডার আমিনুল ইসলাম, বাগমারা দক্ষিণ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আমিনুল ইসলাম সওদাগর, বাগমারা উত্তর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি সামছুল হক, সাধারন সম্পাদক নুরুল ইসলাম, উপজেলা যুবলীগ আহবায়ক আবদুল মোতালেব, যুবলীগ নেতা এডভোকেট জাহাঙ্গীর হোসেন, লোটাস কামাল গ্রুপের লালমাইস্থ ইনচার্জ মনির হোসেন সুমন, উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা মোসলেহ উদ্দীন প্রমুখ।

 

পরে বিকাল ৩.৩০টায় মরহুমের নিজ গ্রামে লাকসামের শিকারীপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে ২য় জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। জানাজার নামাজে ইমামতি করেন মরহুমের ছোট জামাতা মাওলানা কামরুজ্জামান শাহীন। পরে তাঁকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে। জানাজার নামাজে অংশগ্রহন করেন কুমিল্লা সদর দক্ষিণ উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল হাই বাবলু, লাকসাম পৌরসভার সাবেক মেয়র মফিজুর রহমান, ডা: মকবুল আহাম্মদ, ডা: আইয়ুব আলী, পিনাকী গ্রুপের পরিচালক জিয়া উদ্দীন, সদর দক্ষিণ উপজেলা বিএনপির সহ-সভাপতি বৃহত্তর পেরুলের সাবেক চেয়ারম্যান আমান উল্লাহ আমান, পেরুল উত্তরের চেয়ারম্যান আবুল হাসেম মজুমদার প্রমুখ। উভয় জানাজা পূর্বে মরহুমের সন্তান সাভারে র এনাম মেডিকেল কলেজের চক্ষু বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডাঃ মোতাহের হোসেন জুয়েল জানাজায় উপস্থিত সকলের নিকট পিতার রুহের মাগফেরাত কামনা করে দোয়া চান।

 

কর্মব্যস্ততার কারনে জানাজা’র নামাজে অংশগ্রহন করতে না পারলেও প্রিয় শিক্ষকের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন পরিকল্পনামন্ত্রী লোটাস কামাল এমপি, ইষ্ট ওয়েস্ট ইন্ডাষ্ট্রিয়াল পার্ক এর ব্যবস্থাপনা পরচালক হারুনুর রশিদ, সদর দক্ষিণ উপজেলা চেয়ারম্যান গোলাম সারওয়ার, তথ্য ও প্রযুক্তি মন্ত্রনালয়ের অতিরিক্ত সচিব হারুনুর রশিদ, মৌলভী বাজার জেলার পুলিশ সুপার শাহজালাল, পুলিশ সুপার হাাতুন্নবী, অগ্রনী ব্যাংকের উপ-মহাব্যবস্থাপক নুরুল আমিন, চট্টগ্রাম আদালতের জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্যাট দিদার হোসেন , লোহাগড়া থানার ওসি শাহজাহান ও একেএম আমিনুল ইসলাম সিএ।

 

উল্লেখ্য মরহুম আবদুল বারী ভুঁইয়া ১৯৩১ইং সালের ১ মার্চ লাকসামের শিকারীপাড়া গ্রামে জন্মগ্রহন করেন। তাঁর পিতার নাম মরহুম দৌলত ভুঁইয়া। ১৯৫৩ইং সালের ১ সেপ্টেম্বর তিনি বাগমারা ্উচ্চ বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক পদে যোগদান করেন। পরে ১৯৭৬ইং সালের ১৩ আগষ্ট প্রধান শিক্ষক হিসেবে পদোন্নতি পান। ১৯৯১ইং সালের ১ মার্চ তিনি শিক্ষকতা থেকে অবসর নেন। শিক্ষকতা জীবনে তাঁর কৃতি ছাত্র ছিলেন কুমিল্লা জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক ও সাবেক এমপি মরহুম অধ্যক্ষ আবুল কালাম মজুমদার এবং কুমিল্লা জেলা আওয়ামীলীগের বর্তমান সভাপতি পরিকল্পনামন্ত্রী আ.হ.ম মুস্তফা কামাম এমপি।

 

মৃত্যুকালে তিনি ১ স্ত্রী, ৬ ছেলে ও  ৪ মেয়ে সন্তানসহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে গেছেন। দীর্ঘদিন ধরে তিনি বার্ধক্যজনিত রোগে ভোগছিলেন। গত ২০১৫ইং সালের ১৩ আগষ্ট অসুস্থ শিক্ষককে দেখতে শিকারীপাড়ার বাড়ীতে পরিকল্পনামন্ত্রী।

 

ওই সময় শিক্ষক আবদুল বারী পরিকল্পনামন্ত্রীকে বলেন, আমার একছাত্র মরহুম অধ্যক্ষ আবুল কালাম মজুমদার ডাকাতিয়া নদীর উপর শিকারীপাড়া ব্রিজটি নির্মান করেছেন। কিন্তু ব্রীজটি নষ্ট হয়ে গেছে। তাই তুমি নতুন করে ব্রীজটি নির্মাণের ব্যবস্থা করবে।

 

মন্ত্রী তাৎক্ষনিক ব্রীজটি পূণ:নির্মাণসহ শানিচোঁ-শিকারীপাড়া সড়কটি প্রিয় শিক্ষকের নামে করার অঙ্গীকার করেন।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -spot_img

Most Popular

Recent Comments