শনিবার, অক্টোবর 16, 2021
শনিবার, অক্টোবর 16, 2021
শনিবার, অক্টোবর 16, 2021
spot_img
Homeআন্তর্জাতিকজাতীয় চার নেতা হত্যাকান্ড ছিল জাতির পিতাকে সপরিবারে হত্যার ধারাবাহিকতা

জাতীয় চার নেতা হত্যাকান্ড ছিল জাতির পিতাকে সপরিবারে হত্যার ধারাবাহিকতা

বঙ্গবন্ধু এবং জাতীয় চার নেতার প্রতি প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেছে মেট্র ওয়াশিংটন আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠন। ৩ নভেম্বর শুক্রবার সন্ধ্যায় ভার্জিনিয়ার ষ্প্রীংফিল্ডস্থ নিরালা রেষ্টুরেন্টে মেট্র ওয়াশিংটন আওয়ামী লীগের উদ্যোগে ও সহযোগী সংগঠনের সহযোগীতায় এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন মেট্র ওয়াশিংটন আওয়ামী লীগ সভাপতি সাদেক খান এবং সভা পরিচালনা করেন সাধারন সম্পাদক এম নবী বাকী। সভায় বক্তব্য রাখেন দলের সহ সভাপতি শিব্বীর আহমেদ, আনোয়ার হোসাইন, আকতার হোসাইন, মজিবুর রহমান, বদরুল আলম, নুরুল আমিন, ক্রিড়া সম্পাদক মোহাম্মদ আজাদ, কামাল হোসেন, আজম আজাদ, যুবলীগ সভাপতি রবিউল ইসলাম রাজু, স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি আবুল হোসেন শীকদার, সাধারন সম্পাদক খিজির আহমেদ টিটু সহ আরো অনেকে।
সভার শুরুতেই জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও জাতীয় চারনেতার আত্মার মাগফেরাত কামনায় দাঁড়িয়ে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। সভায় বক্তারা বলেন, জাতীয় চার নেতা হত্যাকা- ছিল জাতির পিতাকে সপরিবারে হত্যার ধারাবাহিকতা। এ ধরণের বর্বর হত্যাকান্ড পৃথিবীর ইতিহাসে নজিরবিহীন। ষড়যন্ত্রকারীরা এই হত্যাকাণ্ডের মাধ্যমে বাংলার মাটি থেকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নাম চিরতরে মুছে ফেলে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ধ্বংস এবং বাঙালি জাতিকে নেতৃত্বশুন্য করার অপচেষ্টা চালিয়েছিল। বাংলাদেশের ইতিহাসে ৩ নভেম্বর কলঙ্কময় ও বেদনাবিধুর একটি দিন।
সভায় বক্তারা মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় ঐক্যবদ্ধ হয়ে সকল ষড়যন্ত্র মোকাবিলা করে গণতন্ত্র ও আইনের শাসন সমুন্নত রেখে সরকারের রূপকল্প ২০২১ ও রূপকল্প ২০৪১ বাস্তবায়ন করে জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ বিনির্মাণে আত্মনিয়োগ করার জন্য সবার প্রতি আহ্বান জানান। আলোচনা সভায় বক্তারা ইউনেস্কোর পক্ষ থেকে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান-এর ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণ বিশ্ব ঐতিহ্যের দলিল (ওয়ার্ল্ডস ডকুমেন্টারি হেরিটেজ) হিসেবে স্বীকৃতি প্রদান করায় ইউনেস্কোকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।
উল্লেখ্য, বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারীরা ১৯৭৫ সালের ৩ নভেম্বর ভোর রাতে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে ঢুকে জাতীয় চার নেতা তাজউদ্দিন আহমেদ, সৈয়দ নজরুল ইসলাম, ক্যাপ্টেন এম মনসুর আলী ও এএইচএম কামরুজ্জামানকে হত্যা করে। এই চার নেতা বঙ্গবন্ধুর অনুপস্থিতিতে স্বাধীনতা যুদ্ধে নেতৃত্ব দেন এবং জাতির স্বাধীনতা অর্জিত হয়।
RELATED ARTICLES
- Advertisment -spot_img

Most Popular

Recent Comments