মঙ্গলবার, জানুয়ারী 18, 2022
মঙ্গলবার, জানুয়ারী 18, 2022
মঙ্গলবার, জানুয়ারী 18, 2022
spot_img
Homeকুমিল্লাদাউদকান্দির গৌরীপুরে ভুল চিকিৎসায় প্রসূতি মায়ের মৃত্যুর অভিযোগ

দাউদকান্দির গৌরীপুরে ভুল চিকিৎসায় প্রসূতি মায়ের মৃত্যুর অভিযোগ

দাউদকান্দির গৌরীপুরে ভুল চিকিৎসায় এক প্রসূতি মায়ের মৃত্যুর অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলার গৌরীপুর বাজারের সিটি হসপিটালে ভুল চিকিৎসায় প্রসূতি ফাতেমা বেগম (২৭) নামের এক মায়ের মৃত্যুর অভিযোগ করেন নিহতের পরিবারের সদস্যরা।
নিহতের স্বামী নজরুল সর্দার বলেন, ‘গত ২৬ ডিসেম্বর দাউদকান্দির মালীগাত্তঁ ৫০ শয্যা হাসপাতালের চিকিৎসক ডাঃ ফারজানা আক্তারের গৌরীপুর সরকারি হাসপাতাল কোয়াটারে তার স্ত্রী ফাতেমা বেগমকে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যান। তখন ডাক্তার, রোগীর অবস্থা ভালো না বলে চিকিৎসার জন্য দ্রুত গৌরীপুর সিটি হসপিাটালে পাঠান।

 

পরে সিটি হসপিটালে বিকাল ৩ টায় ডাঃ ফারজানা আক্তার নিজেই সিজারিয়ান অপারেশন করেন। সেখানে একটি কন্যা সন্তান জন্ম দেন ফাতেমা বেগম। অপারেশনের পর রাত ৮টায় রোগীর অবস্থা বেগতিক দেখে ঢাকা মেডিকেলে প্রেরণ করা হয়। রোগীর পরিবার প্রথমে ঢাকা মেডিকেল হাসপাতাল পরে ঢাকা গ্রীণ রোড ইউনিহেলথ্ স্পেশালাইজ হাসপাতালে রোগীকে চিকিৎসা করেন। ইউনিহেলথ্ হাসপাতালে টানা কয়েক দিন আইসিও তে থাকার পর সোমবার রাত সাড়ে ১১ টায় ফাতেমা বেগম মারা যায়’।

 

নিহত ফাতেমা বেগমের স্বামী নজরুল সর্দ্দার আরো অভিযোগ করে বলেন, ‘ডাঃ ফারজানা আক্তার আমাকে আতঙ্কের মধ্যে ফেলে গৌরীপুর সিটি হসপিটালে রোগীকে নিতে বাধ্য করেন। একজন সরকারী ডাক্তার হয়ে তিনি কেন বেসরকারী হাসপাতালে আমার স্ত্রীকে নিয়ে গেলেন? ডাক্তারে ভুল চিকিৎসায় আমার স্ত্রীর মৃত্যু হয়েছে। আমি এবিষয়ে দাউদকান্দি উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ জালাল হোসেনকে গিয়ে অবগত করে এসেছি এবং হাসপাতাল ও চিকিৎসকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য অনুরোধ জানিয়েছি’। নজরুল সর্দ্দার জানান, ‘ফরহাদ (১০) ও নাজমুল (৭) বছরের দুটি ছেলে রয়েছে তার। সে নিজেও প্রতিবন্ধী। গ্রামে ছোট একটি দোকান চালিয়ে কোন রকমে সংসার চালান তিনি। তার দুই ছেলের স্বাভাবিক ডেলিভারি হয়েছে কিন্তু এখন কেন আমার স্ত্রীর সিজারিয়ান অপারেশন করানো হলো’?

 

গৌরীপুর সিটি হসপিাটলের মালিক মোঃ পারভেজ ভূঁইয়া জানান, ‘ফাতেমা বেগমের সিজারয়িান অপারেশন করার কয়েক ঘন্টা পর রোগীর ব্লাড প্রেসার কমে গেলে তাকে দ্রুত ঢাকায় পাঠানো হয়। রোগীর চিকিৎসা সেবায় কোন প্রকার অনিয়ম করা হয়নি। যথাযথ চিকিৎসা প্রদান করা হয়েছে। রোগীর অভিযোগ সঠিক নয়’।

 

দাউদকান্দি উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ জালাল হোসেন জানান, ‘কয়েক দিন পূর্বে ফাতেমা বেগমের স্বামী নজরুল সর্দ্দার আমার অফিসে এসে সিটি হসপিটাল ও ডাঃ ফারজানা আক্তারের বিরুদ্ধে মৌখিকভাবে অভিযোগ করেন। মঙ্গলবারে মুঠোফোনে তিনি জানিয়েছেন যে, তার স্ত্রী ঢাকা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। তার অভিযোগ তদন্ত করে দেখে আমার ব্যবস্থা গ্রহণ করবো’।

 

কুমিল্লা জেলা সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ মজিবুর রহমান বলেন, ‘রোগীর পরিবারের লিখিত অভিযোগ পেলে হসপিাটাল ও চিকিৎসকের বিরুদ্ধে তদন্ত সাপেক্ষে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে’।

 

এব্যাপারে ডাঃ ফারজানা আক্তার মুঠোফোনে জানান, ‘রোগীর পরিবারের অভিযোগ সঠিক নয়। কোন ভুল চিকিৎসার প্রশ্নই উঠে না। রোগীর ব্লাড প্রেসার কমে গেলে তাকে ঢাকা মেডিকেলে পাঠানো হয়। রোগীকে সম্পূর্ণ সঠিক চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হয়েছে। তদের অভিযোগের কোন যুক্তিকতা নেই। রোগীর মৃত্যু কোন চিকিৎসকের কাম্য নয়’।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -spot_img

Most Popular

Recent Comments