কুমিল্লায় মাদকাসক্ত এক যুবকের ছুরিকাঘাতে প্রবাসীর স্ত্রী খুন

কুমিল্লা জেলার বুড়িচং উপজেলার বাকশীমূল ইউনিয়নে মাদকাসক্ত এক যুবকের ছুরিকাঘাতে সৌদি আরব প্রবাসীর স্ত্রী সেতারা বেগম (৩৪) খুন হয়েছে। ঘটনাস্থলে বুড়িচং থানার পুলিশ তদন্ত অব্যহত রয়েছে।

 

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, জেলার বুড়িচং উপজেলার বাকশীমূল ইউনিয়নের পানারপুকুরপাড় গ্রামে সৌদি আরব প্রবাসী আবুল বাশারের স্ত্রী সেতারা বেগমকে একই গ্রামের মৃত ওয়াছ আলীর ছেলে মো: জাকির হোসেন মিস্ত্রী (৩০) কর্তৃক ছুরির আঘাতে খুন করা হয়েছে। ২ জুলাই সোমবার সকালে প্রবাসীর স্ত্রীর ঘরে ডুকে এ ঘটনাটি ঘটিয়েছে মিস্ত্রী জাকির হোসেন।

 

ঘটনাস্থলে গিয়ে জানা যায়, মিস্ত্রী জাকির হোসেন প্রবাসীর ঘরের বিভিন্ন আসবাবপত্র তার মাধ্যমে বানানো হয়েছে। এর সু-বাধে দীর্ঘদিন ধরে ঐ প্রবাসীর বাড়িতে আসা যাওয়া থাকা হতো বলে পাড়াপড়শিরা জানান। সোমবার সকালে সেতারা বেগমের মেয়ে কলি আক্তারের সন্তানকে স্কুলে পাঠানোর উদ্দেশ্যে ঘর থেকে বের হয়ে যায়।

 

এর ফাকে মিস্ত্রী জাকির হোসেন ঘরে প্রবেশ করে দরজা জানালা বন্ধ করে ছুরি আঘাতে নির্মমভাবে হত্যা করে সকলের অজান্তে পালিয়ে যায়। আহত সেতারা বেগমের চিৎকারে বাড়ির লোকজন রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে কুমিল্লা মেডিকেল হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনাটি এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যকর পরিস্থিতি সৃষ্টি করেছে এবং মানুষের মুখে নানান গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে।

 

তবে এ হত্যার সঠিক রহস্য এখনো পাওয়া যায় নি। এলাকায় একাধিক মানুষের ধারনা টাকা পয়সা অথবা অন্য কিছুতে লিপ্ত হয়ে এ ঘটনাটি ঘটিয়েছে। মিস্ত্রী জাকির হোসেন মাদকাসক্ত ছিল বলে একাধিক মানুষের অভিযোগ রয়েছে।

 

ঘটনাস্থলে বুড়িচং থানার তদন্ত ওসি( পরিদর্শক) মেজবাহ উদ্দিন ভূইয়া ও এস আই ইয়াছিন সঙ্গীয় ফোর্স গিয়ে একটি রক্তমাখা ছুরি ও একটি সিগারেটের প্যাকেট উদ্ধার করেন। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত হত্যার রহস্য উদঘাটনের চেষ্টা এবং আইনের প্রক্রিয়াধীন অব্যহত রয়েছে পুলিশের।