মঙ্গলবার, জানুয়ারী 25, 2022
মঙ্গলবার, জানুয়ারী 25, 2022
মঙ্গলবার, জানুয়ারী 25, 2022
spot_img
Homeরায়পুরলক্ষ্মীপুরের রায়পুর মাতৃছায়া হাসপাতাল ভাঙচুর

লক্ষ্মীপুরের রায়পুর মাতৃছায়া হাসপাতাল ভাঙচুর

লক্ষ্মীপুরের রায়পুর মাতৃছায়া হাসপাতালে ভুল চিকিৎসায় আলী হায়দার (৬০) নামে এক রোগীর মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে । ঘটনার পর বিক্ষুব্ধ স্বজনরা মাতৃছায়া হাসপাতাল ভাঙচুর করেছে। সোমবার রাত ১০ টার দিকে রায়পুর মাতৃছায়া হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটে। নিহত হায়দার রায়পুর উপজেলার রাখালিয়া গ্রামের হাবিব উল্লাহর ছেলে ও স্থানীয় ৩ং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন।


পুলিশ ও নিহত রোগীর স্বজনরা জানায়, সোমবার বিকাল ৩ টার দিকে স্থানীয় মরকম আলী সর্দার বাড়ীর সামনের দোকানে চা পান করছিলেন আলী হায়দার। এসময় হঠাৎ মাটিতে লুটে পড়েন তিনি। পরে তাকে উদ্ধার করে রায়পুর মাতৃছায়া হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। পরে মাতৃছায়া হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক সৈয়দ সাখাওয়াত হোসেন রোগীর ডায়রিরয়া রোগ নির্নয় করে চিকিৎসা পত্র প্রদান করে। রোগীর অবস্থার অবনতি হলে দীর্ঘ সময় পরে দ্রুত রোগীকে চাঁদপুর ডায়রিয়া হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার জন্য পরামর্শ প্রদান করেন চিকিৎসক। পরে তাকে মৃত ঘোষনা করেন চিকিৎসক। এ ঘটনায় নিহতের স্বজনরা রায়পুরের মাতৃছায়া হাসপাতালে ভাঙচুর চালায়। পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।


রোগীর স্বজন মো.হারুন জানান, স্ট্রোকের রোগীকে মাতৃছায়া হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক সৈয়দ সাখাওয়াত হোসেন ভুল চিকিৎসা প্রদান করে ডায়রিয়ার রোগী হিসেবে চিকিৎসা দেয়ায় আলী হায়দার মারা যায়। এ ঘটনায় তারা চিকিৎসককে আসামী করে মামলা করা হবে।


হাসপাতালের ব্যবস্থাপক মো; তুহিন চৌধুরী জানান, আলী হায়দার নামে এক ব্যাক্তিকে ডায়রিয়া রোগীকে হিসেবে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। পরে তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে চাঁদপুর হাসপাতালে পাঠানো হয়। পরে ও রোগী মারা গেলে। রাতেই মাতৃছায়া হাসপাতালের চিকিৎসক সৈয়দ সাখাওয়াত হোসেনকে খোজ করে ১০/১৫ জন লোক রোগীর স্বজনরা হঠাৎ এসে হাসপাতাল ভাংচুর করে। পরে তিনি বিষয়টি পুলিশকে অবহিত করলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আসে। ততক্ষণে হাসপাতালে ব্যাপক ভাংচুর চালায় নিহতের স্বজনরা।

রায়পুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ তোতা মিয়া জানান, ভুল চিকিৎসায় রোগী মৃত্যুর অভিযোগ এনে স্বজনরা হাসপাতালে ভাঙচুর চালায়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। ঘটনার তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান তিনি।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -spot_img

Most Popular

Recent Comments