বুধবার, ডিসেম্বর 1, 2021
বুধবার, ডিসেম্বর 1, 2021
বুধবার, ডিসেম্বর 1, 2021
spot_img
Homeরাজনীতিগণঅভ্যুত্থান গড়ে তোলার ডাক দিলেন মির্জা ফখরুল

গণঅভ্যুত্থান গড়ে তোলার ডাক দিলেন মির্জা ফখরুল

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে গণঅভ্যুত্থান গড়ে তোলার ডাক দিয়েছেন।

‘বিএনপির ৪৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে’ বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে আয়োজিত এক উন্মুক্ত আলোচনা সভায় তিনি এ ডাক দেন। পবিত্র কোরআন তেলোয়াত ও দোয়া অনুষ্ঠানের পর জাতীয় সঙ্গীত ও দলীয় সঙ্গীত পরিবেশনার মধ্য দিয়ে এ সভা শুরু হয়। এ সময় মিলনায়তনের বাইরেও শত শত নেতা-কর্মীর সরব উপস্থিতি দেখা গেছে।

প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে মিলনায়তন ও আশপাশে জাতীয় ও দলীয় পতাকা, জিয়াউর রহমান, খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের প্রতিকৃতি দিয়ে বর্ণিলভাবে সাজানো হয়। ‘শুভ শুভ শুভ দিন, বিএনপির জন্মদিন, বাংলাদেশের অপর নাম জিয়াউর রহমান, খালেদা জিয়ার সংগ্রাম চলছে, চলবে, তারেক রহমানের সংগ্রাম চলছে, চলবে’ ইত্যাদি শ্লোগানে নেতা-কর্মীরা তাদের সরব উপস্থিতি জানান দেয়।

নেতা কর্মীদের উদ্দেশ্য করে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, আসুন আমরা ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নেতৃত্বে বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে এবং এদেশে গণতন্ত্রকে ফিরিয়ে আনতে আমরা দূর্বার গণআন্দোলন ও গণঅভ্যুত্থান গড়ে তুলি। যার মাধ্যমে পরাজিত হবে এই স্বৈরাচারী, একনায়ক কর্তৃত্ববাদী আওয়ামী লীগের সরকার এবং জনগণের বিজয় হবে।

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে মিথ্যা মামলায় সাজা দিয়ে সরকার আটক করে রেখেছে অভিযোগ করে মির্জা ফখরুল বলেন, সেই নেত্রীও এদেশে বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদীর পতাকা যেদিন হাতে তুলে নিয়েছিলেন জিয়াউর রহমানের শাহাদাতের পরে- সেদিনও অনেকে মনে করেছিলো যে, বিএনপি বোধ হয় শেষ, বিএনপি ধবংস। আর বিএনপি জেগে উঠবে না। কিন্তু বিএনপির ফিনিক্স পাখির মতো জেগে উঠেছে বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে। ৯ বছর তিনি পথে-প্রান্তরে চারণ কবির মতো গণতন্ত্রের গান গেয়েছেন দেশকে মুক্তি করেছেন এবং আজকেও এই গণতন্ত্রের জন্য তার সমস্ত সুখ-আয়েস ত্যাগ করে, আত্বীয়-স্বজন ত্যাগ করে তিনি গণতন্ত্রকে প্রতিষ্ঠার জন্য কারা অন্তরীণ হয়ে আছেন।

‘আমাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে মিথ্যা মামলা দিয়ে বিদেশে নির্বাসিত হয়ে আছেন। সেখান থেকে তিনি চেষ্টা করছেন। আজকে সমাবেশই প্রমাণ করে তার এই চেষ্টা সফল হচ্ছে। ইনশাল্লাহ সমস্ত জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করা সম্ভব হবে।’

বর্তমান সরকার বাংলাদেশের ইতিহাসকে বিকৃত করেছে অভিযোগ করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, বাংলাদেশের স্বাধীনতাকে তারা কলঙ্কিত করেছে, বাংলাদেশের সানুষের যে আশা-আকাংখা গণতন্ত্রকে তারা হত্যা করেছে। একদলীয় শাসন ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠার জন্য আজকে তারা কাজ করছে।

মির্জা ফখরুল ইসলামের সভাপতিত্বে ও প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী ও সহ-প্রচার সম্পাদক আমিরুল ইসলাম আলীমের সঞ্চালনায় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান।

এছাড়া সভায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ভাইস চেয়ারম্যান অবসরপ্রাপ্ত মেজর শাহজাহান ওমর বীরোত্তম, অবসরপ্রাপ্ত মেজর হাফিজ উদ্দিন আহমেদ বীর বিক্রম, অধ্যাপক এজেডএম জাহিদ হোসেন, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমান উল্লাহ আমান, আবদুস সালাম, যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, যুব দলের সাইফুল আলম নিরব, স্বেচ্ছাসেবক দলের আবদুল কাদির ভুঁইয়া জুয়েল, মহিলা দলের আফরোজা আব্বাস, মুক্তিযোদ্ধা দলের সাদেক আহমেদ খান, ছাত্রদলের ফজলুর রহমান খোকন প্রমূখ বক্তব্য রাখেন।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -spot_img

Most Popular

Recent Comments