সাবেক রাষ্ট্রপতি ইয়াজউদ্দিন আহম্মেদ আর নেই - খবর তরঙ্গ
শিরোনাম :

সাবেক রাষ্ট্রপতি ইয়াজউদ্দিন আহম্মেদ আর নেই



(খবর তরঙ্গ ডটকম)

ঢাকা, ডিসেম্বর ১০  (খবর তরঙ্গ ডটকম)-  হৃদরোগ ও কিডনি জটিলতায় দীর্ঘদিন অসুস্থ থাকার পর ব্যাংককের একটি হাসপাতালে মারা গেছেন সাবেক রাষ্ট্রপতি ইয়াজউদ্দিন আহম্মেদ। তার ছেলে ইমতিয়াজ আহম্মেদ বাবু টেলিফোনে সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, সোমবার সকাল ১০টা ৪০ এ ব্যাংককের বামরুনগ্রাদ হাসপাতালে মারা যান এই সাবেক শিক্ষক। তার বয়স হয়েছিল ৮১ বছর। গত নভেম্বর ওই হাসপাতালে ইয়াজউদ্দিন আহম্মেদের হৃদযন্ত্রে অস্ত্রোপচার হয়। এরপর কিডনিতেও জটিলতা দেখা দিলে অবস্থার অবনতি ঘটে। এরপর থেকেই তাকে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছিল বলে তার ছেলে জানান।

ইমতিয়াজ আহম্মেদ বাবু ও তার মা অধ্যাপিকা আনোয়ারা বেগম বর্তমানে ব্যাংকক অবস্থান করছেন।

সাবেক এই রাষ্ট্রপতির মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শোক প্রকাশ করেছেন বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব আবুল কালাম আজাদ।

দেশের রাজনৈতিক ইতিহাসে ঘটনাবহুল একটি সময়ে রাষ্ট্রপতির দায়িত্বে থাকা ইয়াজউদ্দিন গত বছরের অগাস্ট মাসেও অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন। এরপর গত বছরের সেপ্টেম্বরে তাকে থাইল্যান্ড নেয়া হয়।

চিকিৎসা করে দেশে ফিরলেও অসুস্থবোধ করায় চার মাস আগে তাকে পুনরায় থাইল্যান্ড নেয়া হয়। এর আগে ২০০৬ সালে সিঙ্গাপুরের মাউথ এলিজাবেথ হাসপাতালের ইয়াজউদ্দিনের বাইপাস সার্জারি হয়।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সাবেক সভাপতি ইয়াজউদ্দিন বিএনপি নেতৃত্বাধীন চারদলীয় জোট সরকার আমলে রাষ্ট্রপতি পদে আসীন হন।

বিএনপি ক্ষমতা ছাড়ার পর রাষ্ট্রপতির দায়িত্বের সঙ্গেই তত্ত্বাবধায়ক সরকারের প্রধানের দায়িত্বও তিনি নেন, যা রাজনৈতিক সংঘাতের সৃষ্টি করে বলে মনে করা হয়।

ওই সংঘাতের প্রেক্ষাপটে ২০০৭ সালে দেশে জরুরি অবস্থা জারি করেন ইয়াজউদ্দিন, যার জন্য তিনি সমালোচিত হন। ওই সময় টানা দুই বছর সেনা সমর্থিত একটি তত্ত্বাবধায়ক সরকার দেশ শাসন করেছিল।

বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সাবেক চেয়ারম্যান ইয়াজউদ্দিন ১৯৯৫ সালে একুশে পদক লাভ করেন।


পূর্বের সংবাদ