শহীদ মিনারেও শিক্ষকদের অনশনে বাধা পুলিশের - খবর তরঙ্গ
শিরোনাম :

শহীদ মিনারেও শিক্ষকদের অনশনে বাধা পুলিশের



ঢাকা, (খবর তরঙ্গ ডটকম)

প্রেস ক্লাবের পর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারেও নন এমপিও স্কুল, কলেজ, মাদরাসা ও কারিগরি প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করার দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষকদের কর্মসূচি পণ্ড করে দিয়েছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার সকালে জাতীয় প্রেস কাবের সামনে কর্মসূচি পালনে বাধা পেয়ে শহীদ মিনারে যান শিক্ষকরা। সেখানে বেদিতে শুয়ে বসে পূর্বঘোষিত আমরণ অনশন কর্মসূচি শুরু করে নন এমপিও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষক কর্মচারি ঐক্যজোট। সেখানে শিক্ষকদের ওপর মরিচের গুড়া ছিটিয়ে (পিপার স্প্র) সেখান থেকে তাদের সরিয়ে দেয় শাহবাগ থানা পুলিশ।
শাহবাগ থানার ওসি সিরাজুল ইসলাম বলেন, হাইকোর্টের নির্দেশনা অমান্য করে শহীদ মিনারের বেদিতে অবস্থান করায় তাদের সরিয়ে দেয়া হয়েছে।
নন এমপিও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক কর্মচারি ঐক্যজোটের সভাপতি অধক্ষ্য মো. এশারত আলী বলেন, সকালে প্রেস ক্লাবের সামনে শিক্ষক-কর্মচারিরা জড়ো হলে পুলিশ তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করে। অনেক শিক্ষককে থানায় ধরে নিয়ে যেতে চায়। ভয়ে অনেক শিক্ষকই প্রেস ক্লাবের সামনে আসেননি। শিক্ষকরা জাতি গড়ার কারিগর। আমরা তো আর পুলিশের সাথে মারামারি করতে পারি না। তবে দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত কেউ ঘরে ফিরে যাব না।
নন এমপিও স্কুল, কলেজ, মাদরাসা ও কারিগরি প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করার দাবিতে গত সোমবার থেকে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের কয়েকশ’ শিক্ষক জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে আন্দোলন করেন। বুধবার আন্দোলনের তৃতীয় দিনে শিক্ষক-কর্মচারীদের শিক্ষা ও অর্থ মন্ত্রণালয় ঘেরাও কর্মসূচি পালনের সময় পুলিশের সাথে সংঘর্ষ হয়। এতে পুলিশ সদস্যসহ বেশ কয়েক জন শিক্ষক আহত হন। এদের মধ্যে কয়েক শিক্ষককে জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। শিক্ষকদের উপর পুলিশি ‘হামলার’ প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার থেকে অমরণ অনশন কর্মসূচি ঘোষণা করেন আন্দোলনরত শিক্ষকরা।
এর আগে গত মঙ্গলবার শিক্ষক-কর্মচারিদের শিক্ষাভবন ঘেরাও কর্মসূচিতেও বাধা দেয় পুলিশ। ওইদিনও শিক্ষকদের সাথে পুলিশের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে।
শিক্ষকরা জানান, স্বীকৃতিপ্রাপ্ত প্রায় সাত হাজার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওর অপেক্ষায় আছে। এ সব প্রতিষ্ঠানে এক লাখের মতো শিক্ষক-কর্মচারি কর্মরত রয়েছেন। এ সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওর দাবিতে দীর্ঘ দিন থেকেই আন্দোলন করছিলেন প্রতিষ্ঠানগুলোতে কর্মরত শিক্ষকরা।


পূর্বের সংবাদ