সেতু বিভাগের সাবেক সচিব মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া সাময়িকভাবে বরখাস্ত

সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে পদ্মা সেতু প্রকল্পে দুর্নীতির ষড়যন্ত্র মামলায় প্রধান আসামি সেতু বিভাগের সাবেক সচিব মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়াকে। দুর্নীতির অভিযোগ উঠার পর এরআগে তাকে সেতু বিভাগ থেকে সরিয়ে ওএসডি করে ছুটিতে পাঠানো হয়েছিল। বুধবার জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের এক আদেশের মাধ্যমে মোশাররফ হোসেন ভুঁইয়াকে সাময়িক বরখাস্তের কথা জানানো হয়।
পদ্মা সেতুতে দুর্নীতির ষড়যন্ত্রের অভিযোগে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) দায়ের করা মামলায় সাবেক এই সেতু সচিব গত ২৬ ডিসেম্বর গ্রেপ্তার হয়ে কারাগারে যাওয়ায় তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।

কানাডীয় প্রতিষ্ঠান এসএনসি লাভালিনকে পদ্মা সেতুর পরামর্শকের কাজ পাইয়ে দিতে ঘুষ লেনদেনের ‘ষড়যন্ত্রের’ অভিযোগে গত ১৭ ডিসেম্বর বনানী থানায় সাত জনের বিরুদ্ধে  মামলা দায়ের করে দুদক।

ওই মামলার অভিযোগে বলা হয়, ‘আসামিরা নিজেদের মধ্যে যোগসাজশ করে ঘুষ লেনদেনের ষড়যন্ত্র করার মাধ্যমে পদ্মা সেতু প্রকল্পের তদারকি পরামর্শকের কাজ এর অন্যতম দরদাতা এসএনসি লাভালিন ইন্টারন্যাশনালকে পাইয়ে দেয়ার ব্যবস্থা করে।’

এর মধ্যদিয়ে তারা দণ্ডবিধির ১৬১ এবং ১৯৪৭ সালের দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনে অপরাধ করেছেন যা শাস্তিযোগ্য অপরাধ বলে অভিযোগে বলা হয়।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।