বিচারকরা বিচার কলঙ্কিত করেছেন: কাদের মোল্লা

বিচারকরা বিচারকে কলঙ্কিত করেছেন বলে এজলাসে দাঁড়িয়ে দাবি করেছেন কাদের মোল্লা। মুক্তিযুদ্ধের সময় সংঘটিত মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় আটক জামায়াতের সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল আব্দুল কাদের মোল্লা যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের নির্দেশ শোনার প্রতিক্রিয়ায় বলেছেন, “এ রায় অন্যায় হয়েছে, আমি এটা মানি না।” মঙ্গলবার আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল তাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিলে  তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় এজলাসে দাঁড়িয়ে তিনি এ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন।
এজলাসে দাঁড়িয়ে তিনি বলেন, “এই বিচারকরা বিচারকে কলঙ্কিত করেছেন। এরা  এজেন্ডা বাস্তবায়নে কাজ করেছেন। একদিন কোরআনের আইন অনুযায়ী আমি এদের  বিরুদ্ধে মামলা করবো। সেদিন এদের হাত পা কথা বলবে।”রায় পড়া শেষে কাস্টডিতে থাকা আব্দুল কাদের মোল্লা আল্লাহু আকবর বলে দাঁড়িয়ে পড়েন। তিনি বলেন, “আমি এ রায় মানি না। এ রায় অন্যায় হয়েছে। আমার বিরুদ্ধে যে সব অভিযোগ আনা হয়েছে সে সময় আমি ঢাকায় ছিলাম না।”

তিনি আরও বলেন ,“বিচারপতিরা জল্লাদের মতো আমার বিরুদ্ধে রায় দিয়েছেন। তারা আমার সঙ্গে জল্লাদের মতো আচরণ করেছেন। আমি বিশ্ব মানবতার কাছে বিচার দিচ্ছি।”“আমি পবিত্র কুরআন হাতে নিয়ে বলছি এ ঘটনার সঙ্গে আমি যুক্ত নই। আমি কিয়ামতের দিন বিচারকদের বিরুদ্ধে কেয়ামতের দিন মামলা দায়ের করব। যখন তাদের মুখে কথা বলার কোনো শক্তি থাকবে না।”

তিনি বলেন,  “আজ আমার বিরুদ্ধে যে রায় দেওয়া হয়েছে তা মিথ্যা, আবার যে মামলায় খালাস  দেওয়া হয়েছে তাও মিথ্যা। এমনকি আমার বিরুদ্ধে যেসব অভিযোগ এনে রায় দেওয়া  হয়েছে সেসবও মিথ্যা।” বিচারকরা উঠে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে এজলাসে দাঁড়িয়ে তিনি আল্লাহু আল্লাহু আকবর বলে চিৎকার করে এসব কথা বলেন।

এসময় পুলিশ তাকে থামানোর চেষ্টা করলে তিনি না থেমে তার বক্তব্য চালিয়ে যান। এদিকে রায়ের শুরুতে কাদের মোল্লা কথা বলতে চাইলে ট্রাইব্যুনাল তাকে কোনো কথা বলার সুযোগ দেননি।

 

 

 

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।