যুক্তি উপস্থাপন শুরু : গোলাম আযমের মামলায়

একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে আটক জামায়াতের সাবেক আমির অধ্যাপক গোলাম আযমের মামলায় যুক্তিতর্ক উপস্থান শুরু করেছে প্রসিকিউশন। রোববার আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১এর চেয়ারম্যান এটিএম ফজলে কবীরের নেতৃত্বে তিন সদস্যের ট্রাইব্যুনালে যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শুরু হয়। প্রসিকিউশনের পক্ষে চিফ প্রসিকিউটর গোলাম আরিফ টিপু এ মামলায় যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শুরু করেন।এর আগে গত বৃহস্পতিবার আসামিপক্ষ তাদের সাফাই সাক্ষী হাজির করতে ব্যর্থ হলে তাদের সাক্ষ্য গ্রহণ বন্ধ করে যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শুরুর নির্দেশ দেয় ট্রাইব্যুনাল। যদিও আসামীপক্ষ তাদের সাক্ষী হাজির করতে এবং বিদেশী সাক্ষীদের সাক্ষ্য গ্রহণ করতে কয়েকটি আবেদন করেছেন।

গত ১১ ফেব্রুয়ারি গোলাম আযমের ছেলের সাক্ষ্য গ্রহণ ও জেরা শেষ হয়।
জামায়াতে ইসলামীর সাবেক আমির অধ্যাপক গোলাম আযমের বিরুদ্ধে তদন্ত কর্মকর্তা (আইও) মতিউর রহমানসহ প্রসিকিউশনের পক্ষে ১৭জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ ইতিমধ্যে শেষ হয়েছে।
এ ছাড়া প্রসিকিউশনের ১৬তম সাক্ষী হিসেবে আমেরিকা প্রবাসী মহসিন আলী খানের তদন্ত কর্মকর্তার কাছে দেয়া জবানবন্দিকে সাক্ষ্য হিসেবে গ্রহণ করেছে ট্রাইব্যুনাল।
মানবতাবিরোধী পাঁচ ধরনের অপরাধের ৬১টি অভিযোগে অভিযুক্ত করে গত ১৩ মে গোলাম আযমের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন ট্রাইব্যুনাল। ১ জুলাই থেকে তার বিরুদ্ধে সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু হয় ।