‘পার্বত্য অঞ্চলে মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনা এ সরকারের আমলে বেশি ঘটেছে’

ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের (টিআইবি) নির্বাহী পরিচালক ও পাবর্ত্য চট্টগ্রামবিষয়ক আন্তর্জাতিক কমিশনের সদস্য ড. ইফতেখারুজ্জামান বলেছেন, পার্বত্য অঞ্চলে সংঘটিত বেশির ভাগ মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনা বর্তমান সরকারের আমলে ঘটেছে। ভূমি দখলসহ সব নির্যাতনের ঘটনা সেনাবাহিনীর উপস্থিতিতে হয়েছে, এমন অভিযোগ রয়েছে বলেও জানান তিনি। তিনি বলেন, বাংলাদেশের সীমান্তবর্তী অন্যান্য অঞ্চলের মতো চট্টগ্রামের পার্বত্য অঞ্চল অতটা ঝুঁকিপূর্ণ নয়।

পার্বত্য এই অঞ্চলগুলোতে পাহাড়ি ও বাঙালিদের মধ্যে বিরাজমান সমস্যাকে রাজনৈতিক সমস্যা হিসেবে উল্লেখ করে ইফতেখারুজ্জামান বলেন, রাজনৈতিকভাবে এ সমস্যার মোকাবেলা করা যেতে পারে। সেখানে সামরিক বাহিনীকে চাপিয়ে দেয়া ঠিক হবে না।

শনিবার রাজধানী সিরডাপ মিলনায়তনে পার্বত্য চট্টগ্রামবিষয়ক আন্তর্জাতিক কমিশন আয়োজিত  ‘পার্বত্য চট্টগ্রামে মানবাধিকার পরিস্থিতি ও পার্বত্য চুক্তি বাস্তবায়নের বর্তমান অবস্থা’ শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠকে তিনি এসব কথা বলেন।

ড. ইফতেখারুজ্জামান বলেন, পার্বত্য অঞ্চলে এক হাজার ৪৮৭টি মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনার মধ্যে বেশির ভাগ ঘটনাই এ সরকারের সময়ে ঘটেছে। মানবাধিকার লঙ্ঘনের এসব ঘটনা সেনাবাহিনীর উপস্থিতিতে ঘটেছে বলেও তিনি অভিযোগ করেন।

গোলটেবিল বৈঠক পরিচালনা করেন সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা ও পার্বত্য চট্টগ্রামবিষয়ক আন্তর্জাতিক কমিশনের কো-চেয়ার সুলতানা কামাল।

বিভিন্ন কোম্পানি, এনজিও ও কিছু প্রভাবশালী ব্যক্তির মাধ্যমে হাজার হাজার একর পাহাড়ি জমি বেদখল হয়েছে বলে অভিযোগ করে সুলতানা কামাল বলেন, বর্তমান সরকার তাদের নির্বাচনী ইশতেহারে শান্তিচুক্তি বাস্তবায়নের যে কথা বলেছিল, তা পালনে ব্যর্থ হয়েছে। সরকার তার সিদ্ধান্ত থেকে সরে গেছে।

সুলতানা কামাল বলেন, “দুঃখজনক হলেও সত্য, সরকার আদিবাসী দিবস পালনেও অনীহা প্রকাশ করেছে।”

মুক্ত আলোচনায় অংশ নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী জেড আই খান পান্না বলেন, আওয়ামী লীগের নেত্রী সৈয়দা সাজেদা চৌধুরীর নেতৃত্বে গঠিত চুক্তি বাস্তবায়নে যে কমিটি হয়েছে, তা সম্পূর্ণরূপে অকার্যকর। পার্বত্য অঞ্চলের চুক্তি বাস্তবায়নের ইচ্ছা সরকারের নেই। সরকার লোক দেখানো চুক্তি করেছে বলেও মনে করেন তিনি।

অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন সংগঠনের সদস্য খুশী কবির, ড. স্বপন আদনান, ড. ইয়াসমিন হক, সংগঠনের উপদেষ্টা ড. মেঘনা গুহঠাকুরতা ও ব্লাস্টের আইনজীবী জুয়েল দেওয়ান।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।