জোহরা তাজউদ্দীন আর নেই

ঢাকা: শুক্রবার বেলা সাড়ে ১০টার দিকে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য এবং বাংলাদেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী তাজউদ্দীন আহমেদের স্ত্রী সৈয়দা জোহরা তাজউদ্দীন মারা গেছেন (ইন্না লিল্লাহে ওয়া ইন্না ইলাহে রাজেউন)।

মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮০ বছর। মরহুমা ছেলে সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী তানজিম আহমেদ সোহেল তাজ ও মেয়ে সংসদ সদস্য সিমিন হোসেন রিমি, মাহজাবীন আহম্মেদসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

নিহতের পারিবারিক সূত্র জানায়, জোহরা তাজউদ্দীন দীর্ঘদিন ধরে বার্ধক্যজনিত রোগে ভুগছিলেন। এরই মধ্যে নভেম্বরে বাসায় পড়ে গিয়ে তার কোমরের হাড় ভেঙে যায়।

পরে তাকে ঢাকার ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়। অবস্থা খারাপ হলে দিল্লির একটি হাসপাতালে উন্নত চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়। সেখানে তার একটি অস্ত্রোপ্রচারের পর কিছুটা উন্নতি হলে গত ১৭ ডিসেম্বর ঢাকায় এনে পুনরায় ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

গত বৃহস্পতিবার তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে লাইফ সাপোর্টে আইসিইউতে নিবীড় পর্যবেক্ষণে রাখা হয়। সেখানে আজ সকাল সাড়ে ১০টায় তিনি ইন্তেকাল করেন। এ সময় মেয়ে সিমিন হোসেন রিমিসহ পরিবারের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়, বাদ জুমা গুলশানের আজাদ মসজিদে তার নামাযে জানাযা অনুষ্ঠিত হবে।

জোহরা তাজউদ্দীনের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শোক প্রকাশ করেছেন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।