জেএসসি-জেডিসিতে দুই পরীক্ষায় পাসের হার ৮৯.৯৪% (রেজাল্ট দেখতে নিউজটি দেখুন)

জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) ও জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট (জেডিসি) পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হয়েছে। দুই পরীক্ষায় পাসের হার ৮৯.৯৪ শতাংশ। এ বছর পাস করেছে ১৬ লাখ ৭৫ হাজার ১০৯ পরীক্ষার্থী। এর মধ্যে কুমিল্লা ও সিলেট বোর্ডে পাসের হার যথাক্রমে ৯০.৪৫ এবং ৯১.১৫ শতাংশ। এদের মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে এক লাখ ৭২ হাজার ২০৮ হাজার জন।
(রেজাল্ট দেখতে এখানে ক্লিক করুন)

শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ রোববার সকাল ১০টায় গণবভনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে ফলাফলের অনুলিপি তুলে দেন। শিক্ষাসচিব কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ফাহিমা খাতুন, আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় সাব-কমিটির সভাপতি অধ্যাপক তাসলিমা বেগমসহ বিভিন্ন বোর্ডের চেয়ারম্যানরা এ সময় উপস্থিত ছিলেন। দুপুর একটায় শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সম্মেলনকক্ষে সংবাদ সম্মেলনে বিস্তারিত তুলে ধরবেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ।

বেলা দুইটায় দেশের শিক্ষা বোর্ডগুলোর ওয়েবসাইট (www.educationboardresults.gov.bd), সংশ্লিষ্ট সব পরীক্ষা কেন্দ্র ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এবং মোবাইলফোনের ম্যাসেজের মাধ্যমে একযোগে ফল প্রকাশ করা হবে।

এবারো পাঁচটি সূচকের ভিত্তিতে শীর্ষ প্রতিষ্ঠান বাছাই করা হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে নিবন্ধিত প্রার্থীদের মধ্যে নিয়মিতদের পাসের হার, শতকরা পাসের হার, মোট পরীক্ষার্থীর মধ্যে জিপিএ-৫ প্রাপ্তির হার, পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ও প্রতিষ্ঠানের গড় জিপিএ।

ফল পুনর্নিরীক্ষণের জন্য ৩০ ডিসেম্বর থেকে আগামী ৮ জানুয়ারি পর্যন্ত আবেদন করা যাবে। আবেদন পদ্ধতি টেলিটকের বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানা যাবে।

৪ নভেম্বর জেএসডি ও জেডিসি পরীক্ষা শুরু হয়েছিল। এবার পরীক্ষার্থী ছিল প্রায় ১৯ লাখ।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।