দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ১০ শতাংশ প্রার্থীর বিরুদ্ধে মামলা রয়েছে: সুজন

আসন্ন দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী ৫৪০ জন প্রার্থীর মধ্যে ৫৯ জন বা ১০ শতাংশের বিরুদ্ধে মামলা রয়েছে বলে জানিয়েছে সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন)।

বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে এক সংবাদ সম্মেলনে সুজন এ তথ্য তুলে ধরে। সংবাদ সম্মেলনে ‘দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী প্রার্থীগণের তথ্য প্রকাশ’ বিষয়টি উপস্থাপন করা হয়।

সুজনের প্রতিবেদনে বলা হয়, এসব প্রার্থীর বিরুদ্ধে অতীতে মামলা ছিল ৩৫ শতাংশ বা ১৯৪ জনের বিরুদ্ধে। বর্তমান মামলার চেয়ে প্রার্থীদের অতীতের মামলাই বেশি। এটা প্রমাণ করে, অধিকাংশ প্রার্থী ক্ষমতার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট থাকার কারণে পরিসংখ্যানটি এমন হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে প্রার্থীদের হলফনামায় দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে শিক্ষাগত যোগ্যতা, পেশা, ফৌজদারি মামলার বিবরণ, বার্ষিক আয়, স্থাবর ও অস্থাবর সম্পত্তির বিবরণ, ঋণ ও দায়-দেনা ও আয়কর ইত্যাদি তুলে ধরা হয়।

এবারের নির্বাচনে ৩০০ আসনে সর্বমোট ৫৪৩ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত ১৫৩ জন বাদ দিলে অবশিষ্ট ১৪৭টি আসনে মোট ৩৯০ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

সুজনের এ সংবাদ সম্মেলনে ৫৪৩ জনের মধ্যে ৫৪০ জনের তথ্য বিশ্লেষণ করা হয়েছে। এর কারণ হিসেবে বলা হয়, যে তিনজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার যোগ্যতা ফিরে পেয়েছেন, তাদের হলফনামা নির্বাচন কমিশনের ওয়েবসাইটে পাওয়া যায়নি।

সংবাদ সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেন বিচারপতি কাজী এবাদুল হক। প্রার্থীদের হলফনামার তথ্য তুলে ধরেন সুজনের সম্পাদক বদিউল আলম মজুমদার। এ ছাড়া সংবাদ সম্মেলনে আরো বক্তব্য দেন আইন বিশেষজ্ঞ শাহদীন মালিক।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।