সরকারি চাকরিতে নিয়োগের বয়সসীমা ৩৫ করার দাবি

সরকারি চাকরিতে নিয়োগের বয়সসীমা সাধারণ ছাত্রছাত্রীদের ৩৫ বছর ও বীর মক্তিযোদ্ধার সন্তানসহ অন্যান্যদের আনুপাতিক হারে বারানোর দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র পরিষদ।

বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র পরিষদ আয়োজিত এক মানববন্ধনে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যায়ের ছাত্রছাত্রীরা এ দাবি জানান।

বক্তারা বলেন, খাতা-কলমে ২৩ বছরে শিক্ষার বয়স শেষ হলেও পকৃত পক্ষে আমাদের শিক্ষার বয়স শেষ হয় ২৭ থেকে ২৮ বছর বয়সে। এর মূল কারণ শিক্ষাজীবনের সেশনজট।

তারা বলেন, আমাদের শিক্ষাজীবন শেষে চাকরি প্রস্তুতি নিতে নিতে সরকারি চাকরি বয়স শেষ হয়ে যায়। তাই সরকারি চাকরি নিয়োগ আমাদের যোগ্যতার ভিত্তিতে হওয়া দরকার। যোগ্যতার সঙ্গে আমাদের বয়সের কোনো সম্পর্ক নেই।

সন্তানের প্রতি বাবা-মার স্বপ্ন স্বপ্নই থেকে যায় উল্লেখ করে তারা বলেন, আমাদের এই ৩০ বছরে বুড়ো হয়ে যাওয়ার কারণে তাদের সারা জীবনের স্বপ্ন ধুলিস্যাৎ হয়ে যায়। তাদের এই কষ্ট আমাদের সারা জীবন বহন করতে হয়।

সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়ে তারা বলেন, আমাদের ও আমাদের মাতাপিতার কষ্ট সরকার বুঝবেন। এবং আমাদের দাবি সরকার পূরণ করবেন। যাতে করে আমাদের বাবা-মার মুখে হাসি ফোটাতে পারি।

বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র পরিষদের সভাপতি মো. ইমতিয়াজ হোসেনের সভাপতিত্বে আরো বক্তব্য দেন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক আশফাকুর রহমান মুক্ত, সিনিয়র সহ-সভাপতি কামাল আহমেদ, সহ-সভাপতি শাখাওয়াত হোসেন, সহ-সভাপতি সঞ্জয়সহ বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ ছাত্রছাত্রীরা।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।